কাহারোল (দিনাজপুর) সংবাদাতাঃ দিনাজপুরের কাহারোলে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার প্রথম দিনেই পরীক্ষা দিয়ে বাড়ী ফেরা হলো না আসমা খাতুন (১১) নামে এক ক্ষুদে শিক্ষার্থীর। পরীক্ষা দিয়ে বাড়ী ফেরার পথেই সড়কে প্রাইভেট কার কেড়ে নিলো তার প্রাণ।

নিহত আসমা খাতুন দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলার ইটুয়া গ্রামের দরিদ্র ভ্যান চালক মন্টু মিয়ার মেয়ে ও ইটুয়া আদিবাসী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। সে এবার কাহারোল উপজেলার পূর্ব মল্লিকপুর এম. উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছিল।

পুর্ব মল্লিকপুর এম. উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের হল সুপার মেরাজুল ইসলাম জানান, প্রথম দিনের ইংরেজী পরীক্ষা শেষে দুপুর সোয়া একটায় রিক্সা ভ্যানযোগে বাড়ী ফিরছিলো আসমা খাতুন। দিনাজপুর-ঠাকুরগাঁও মহাসড়কের কাহারোল উপজেলার এগারো মাইল নামক স্থানে ভ্যান থেকে নেমে রাস্তা পার হওয়ার সময় দিনাজপুর থেকে ঠাকুরগাঁওগামী একটি প্রাইভেট কার তাকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই সে নিহত হয়।

এই দুর্ঘটনার পর বিক্ষুব্ধ লোকজন এক ঘন্টা দিনাজপুর-ঠাকুরগাঁও মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। পরবর্তীতে পুলিশ এসে এলাকাবাসী শান্ত করলে আবার যান চলাচল শুরু হয়।

ঠাকুরগাঁও থানার ওসি মনোজ কুমার রায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য