মাসুদ রানা পলক,ঠাকুরগাঁওঃ ঠাকুরগাঁওয়ে জেডিসি পরীক্ষায় পরীক্ষার্থীদের নকল সরবরাহ করার দায়ে তিন কক্ষ পরিদর্শক এবং নিয়ম বহির্ভূতভাবে মুঠোফোন সঙ্গে রাখার দায়ে অপর দুই পরিদর্শকসহ পাঁচ শিক্ষককে সাজা দিয়েছে ভ্রার্মমান আদালত।

শনিবার (১৬ নভেম্বর) জেডিসির ইংরেজি পরীক্ষা চলাকালীন সালন্দর কামিল মাদরাসা কেন্দ্রে মোঃ মনসুর আলী ও আয়েশা সিদ্দিকা নামে দুই কক্ষ পরিদর্শক পরীক্ষার্থীদের নকল সরবরাহ করছিলেন। এ সময় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল্লাহ আল মামুন নকল সরবরাহ করার দায়ে তাদের ১৫ দিন করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন।

সাজাপ্রাপ্ত পরিদর্শক মনসুর আলী ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার উত্তর হরিহরপুর আলেম মাদরাসার শিক্ষক এবং আয়েশা সিদ্দিকা ভেলাজান আনছারিয়া ফাজিল মাদরাসার শিক্ষক।

এ দিকে, বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার ধনতলা ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসার সহকারী শিক্ষক আব্দুল কাদেরকে জেডিসি পরীক্ষায় নকল সরবরাহ করার দায়ে এক মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। বালিয়াডাঙ্গীর সমিরউদ্দীন স্মৃতি মহাবিদ্যালয় কেন্দ্রে উপজেলা নির্বাহী অফিসার খায়রুল আলম সুমন এ রায় প্রদান করেন।

অপর দিকে মুঠোফোন সঙ্গে রাখার দায়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল কাইয়ুম খান মহাদয়, আবু সায়েম ও রশিদা বেগম নামে অপর দুই পরিদর্শককে এক হাজার টাকা করে জরিমানা করেন।

দণ্ডিত শিক্ষক আবু সায়েম দানারহাট আনছারিয়া কামিল মাদরাসার শিক্ষক এবং রশিদা বেগম সালন্দর কামিল মাদরাসার শিক্ষক।

সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল্লাহ আল মামুন আমাদের প্রতিনিধিকে জানান, শনিবার মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের আওতায় সালন্দর কামিল মাদরাসা পরীক্ষা কেন্দ্রে ইংরেজি পরীক্ষার পরিদর্শক মনসুর আলী ও আয়েশা সিদ্দিকা নামে দুই শিক্ষক পরীক্ষার্থীদের নকল সরবরাহ করছিল। নকল সরবরাহ করার অপরাধে ওই দুই শিক্ষককে আটক করা হলে তারা তাদের দোষ স্বীকার করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য