মাসুদ রানা পলক,ঠাকুরগাঁওঃ ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক ড. কে এম কামরুজ্জামান এর একান্ত প্রচেষ্টায় দীর্ঘ কয়েক মাস থেকে “অদম্য বাংলাদেশ কর্ণার” এর নির্মাণ কাজ সম্পূর্ণ হয়েছে গত ২১ জুন ২০১৯ ।

এরপর থেকেই বিভিন্ন দপ্তরের সচিব,অতিরিক্ত সচিব, জেলা বিজ্ঞ দায়রা জজ,আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, এমপি রাজনীতিবিদ, শিক্ষক-শিক্ষিকা বৃন্দ, সরকারি বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছাত্র-ছাত্রীবৃন্দসহ বিভিন্ন সংগঠনের কর্মকর্তাবৃন্দ পরিদর্শনের মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক ছোট এই জাদুঘরটি দিনে দিনে জনপ্রিয়তা ব্যাপক ভাবে পেয়েছে।

বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণের একটি উক্তি ‘ সাত কোটি বাঙালিকে দাবায় রাখতে পারবা না’- এ উক্তির স্পিরিট থেকে ধারণা নিয়ে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের দ্বিতীয় তলায় পশ্চিম প্রান্তে নির্মাণ করা হয়েছে “অদম্য বাংলাদেশ কর্ণার”।

জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে নির্মিত “অদম্য বাংলাদেশ কর্ণার” পরিদর্শন করেন রংপুর রেঞ্জের এ্যাডিশনাল ডিআইজি (প্রশাসন) মোঃ ইকবাল হোসেন, বিপিএম-সেবা, (নভেম্বর ১২) মঙ্গলবার জনপ্রিয় এই “অদম্য বাংলাদেশ কর্নার” পরিদর্শন করেন।জেলা প্রশাসক ড. কেএম কামরুজ্জামান সেলিম মুক্তিযুদ্ধ সমন্বিত ইতিহাসের বিভিন্ন চিত্র ঘুরে ঘুরে তাঁকে দেখান এসময়
উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার মোহা:মনিরুজ্জামান পিপিএম সেবা,অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আমিনুল ইসলাম,সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো:ফজলে রাব্বানী চৌধুরী প্রমুখ।

জেলা প্রশাসক অতিথিদের সামনে তুলে ধরেন,৭ মার্চের পরবর্তী ঘটনা প্রবাহ হতে শুরু করে স্বাধীনতা যুদ্ধ, বাংলাদেশের অভ্যুদয়, ২০০০-২০১৫ পর্যন্ত এমডিজি সফল বাস্তবায়ন, ২০২০ এ বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবর্ষ উৎযাপন, ৭ম পঞ্চ বার্ষিকী পরিকল্পনা,২০২১ সালে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে মধ্যম আয়ের দেশে রুপান্তর, ২০১৬-২০৩০ এসডিজি বাস্তবায়ন, সমৃদ্ধির অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহার ২০১৮ এর ৩টি বাতিঘর আমার গ্রাম আমার শহর, তারুণ্যের শক্তি বাংলাদেশের সমৃদ্ধি ও সুশাসন, ২০৪১ সালের উন্নত বাংলাদেশ, ২০৭১ সালে স্বাধীনতার শতবর্ষে উন্নতির সর্বোচ্চ শিখরে আহোরণ, ২১০০ সালের ডেল্টা প্ল্যান, মাননীয়প্রধানমন্ত্রীর ১০টি বিশেষ উদ্যোগ এবং ১০টি মেগা প্রকল্প সচিত্ররুপে স্থান পেয়েছে এ কর্ণারে।

বাংলাদেশের অতীত জন্মইতিহাস, বর্তমান মিশন ও ভবিষ্যৎ ভীশন তরুন প্রজন্মের নিকট তুলে ধরাই এ কর্ণার স্থাপনের মূল উদ্দেশ্য।

এছাড়াও ঠাকুরগাঁও জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে প্রতিদিন অনেক মানুষ দেখতে ও জানতে আসছেন এই “অদম্য বাংলাদেশ কর্ণার।

ইতিহাস সম্বলিত সচিত্র পরিদর্শন শেষে রংপুর রেঞ্জের এ্যাডিশনাল ডিআইজি (প্রশাসন) মোঃ ইকবাল হোসেন, বিপিএম-সেবা,জেলা প্রশাসক ড.কেএম কামরুজ্জামান সেলিমকে ধন্যবাদ জানান।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য