থাইল্যান্ডের আদালতকক্ষে অভিযুক্ত এক পুলিশ কর্মকর্তার গুলিতে একজন বাদী ও তার আইনজীবী খুন হয়েছেন। পরে দায়িত্বরত আরেক পুলিশ কর্মকর্তার গুলিতে অভিযুক্ত ওই সাবেক কর্মকর্তাও নিহত হন। থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককের পূর্বে অবস্থিত চান্তাবুরি প্রদেশের একটি আদালতে মঙ্গলবার এই ঘটনা ঘটেছে। খবর রয়টার্সের।

আদালতে এদিন থারিন চান্তারাথিপ নামের ওই সাবেক পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে একটি মামলার বিচারকার্য চলছিল। থারিনের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের ও মিথ্যা সাক্ষ্য প্রদানের অভিযোগ এনে দুজন বাদী ও তাদের আইনজীবীরা আদালতে মামলা দায়ের করেছিলেন।

আদালতসূত্র একটি বিবৃতিতে জানায়, বিচারক আদালতকক্ষ ছেড়ে বেরিয়ে যাবার পর অভিযুক্ত পুলিশ কর্মকর্তা আকস্মিকভাবে এই হামলা চালায়। এতে একজন বাদী ও তার আইনজীবী নিহত হন।

সুরিয়া হঙ্গুইলাই নামে বিচারকের একজন মুখপাত্র বলেন, ‘অভিযুক্ত ওই সাবেক পুলিশ কর্মকর্তার নাম থারিন চান্তারাথিপ বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। এর আগে অভিযোগকারীরা বেশ কয়েক বছর অনেকগুলো মামলায় জেল খেটেছেন। থারিন তাদের বিরুদ্ধে জননিরাপত্তাজনিত মামলাসহ বেশ কয়েকটি অপরাধ মামলা দায়ের করেছিলেন। থারিন এসব মামলা উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে করেছিলেন বলে বাদীরা অভিযোগ জানিয়েছেন।’

গত অক্টোবরে একজন বিচারপতি ৫ জন মুসলিম নাগরিকের বিরুদ্ধে দায়ের করা খুনের মামলায় অভিযুক্তদের মুক্তি দিয়ে নিজের বুকে নিজে গুলি করেছিলেন। থাইল্যান্ডে প্রায়ই পুলিশের বিভিন্ন মিথ্যা মামলায় সাধারণ, দরিদ্র ও সংখ্যালঘু নাগরিকেরা অবিচারের শিকার হন বলে অভিযোগ আছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য