সংবাদ সম্মেলনঃ চেয়ারম্যান জিয়াউর রহমান জিয়াকে মাদক ব্যবসায়ী, চোরাকারবারী দূনীর্তিবাজ ও প্রকল্পের অর্থ-আত্বসাতকারী অভিযোগে চেয়ারম্যানপদ থেকে দ্রুত অপসারন ও আইনগত ব্যবস্থাগ্রহনের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন ও ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন করেছে আস্করপুর ইউপির স্থানীয় জনগন।

সোমবার সকালে দিনাজপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে সদরের ৯নং আস্করপুর ইউপি চেয়ারম্যান জিয়াউর রহমান জিয়ার বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন ও মানববন্ধন কর্মসুচী পালন করেছে ৯নং আস্করপুর ইউপির বাসিন্দারা। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন কোতয়ালী আ:লীগের সহ-সভাপতি ও সাবেক আস্করপুর ইউপি চেয়ারম্যান মো: মোশাররফ হোসেন।

লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেছেন,ই্উনিয়ন আওয়ামী লীগের সা:সম্পাদক ও চেয়ারম্যান হওয়ার সুবাধে দলীয় প্রভাব খাটিয়ে চোরাকারবারিদের মাফিয়া ডন মিজানের সাথে পরোক্ষ এবং প্রত্যক্ষ ভাবে সখ্যতার মাধ্যমে নিজেকে চোরাকারবারীদের গডফাদারে পরিনত করেছে। নির্বাচিত চেয়ারম্যান হওয়ার পর হতে বিভিন্ন অর্থবছরে ইউপির উন্নয়নমুলক কাজের জন্য সরকারী এবং বেসরকারী বিভিন্ন প্রকল্পের বিপরিতে বরাদ্ধ হওয়া সরকারের কোটি কোটি টাকা আত্বসাত করেছে।

যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য,২০১৮-১৯ অর্থবছরের ১% এর বরাদ্ধকৃত ১১ লাখ টাকা,২০১৭-১৮ অর্থবছরের এডিপি কতৃর্ক প্রান্তি কৃষকদের স্প্রে মেশিন ক্রয়ের বরাদ্ধ ২ লাখ টাকা, ২০১৭-১৮ অর্থবছরের এলজিএসপির বরাদ্ধকৃত ২৩ লাখ ৫৪ হাজার ৮২৯ টাকা

এবং ২০১৮-১৯ অর্থবছরের ১ম ও ২য় কিস্তির ১৭ লাখ ৬১ হাজর ৮০৮ টাকার যে সমস্ত নির্মানকাজ করা হয়েছে তাহা সরকারী প্রাক্কলন মোতাবেক নির্মান কাজ করা হয়নি। এছাড়ও ইউনিয়নের সরকারী রাস্তার ৩৬টি পুরাতন গাছ কেটে সর্ম্পূণœ টাকা আত্বসাত করেছেন। সরকারী কাজের দরপত্রে নিয়ম মোতাবেক কোন কাজই করতে হয়নি ক্ষমতারবলে সে যা-ইচ্ছে তাই করেছে।

তারা বলেন, সদরের এই ইউপিটি সীমান্তবর্ত্তী ইউনিয়ন হওয়ায় চেয়ারম্যান জিয়াউর রহমান জিয়া মাদকব্যবসায়ী ও চোরাকারবারীদের নিরাপত্তা দেয়ায় বর্তমানে ভারত হতে মাদক ও অন্যান্য ভারতীয় মালামাল আনার নিরাপদ রুট হয়েছে আস্করপুরের বিভিন্ন গ্রাম। মাদকব্যবসায়ীদের সাথে সখ্যতার কারনে স্থানীয় প্রশাসনকে না জানিয়ে মাসের মধ্যে কয়েকবার সে ভারত যাওয়া আসা করেন।

ইতিপূর্বে এধরনের কর্মকান্ডে চেয়ারম্যান জিয়া জড়িত অভিযোগে ব্যবস্থাগ্রহনের জন্যে জেলা প্রশাসক,দূনীর্তি দমন কমিশনসহ সরকারের সংশ্লীষ্ট বিভিন্ন মন্ত্রনালয়ে পর পর ৫টি অভিযোগ করা হলেও এখন কোন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। তারা সংবাদ সম্মেলন থেকে চেয়ারম্যান জিয়াউর রহমান জিয়াকে দ্রুত অপসরানসহ আইন মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী করেন। পরে তারা বিক্ষোভ মিছিলসহ জেলা প্রশাসকের নিকট গিয়ে স্মারকলিপি প্রদান করেছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন,আস্করপুর ইউনিয়ন আ:লীগের সভাপতি খতিব উদ্দীন আহম্মেদ,বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আজগর আলী,শরিফ উদ্দীন,আনোয়ার হোসেন,মো: জোবেদ আলী,মো: সিরাজুল ইসলাম,মো: ইউনুস আলী,মিজানুর রহমান,মো: নজরুল ইসলাম প্রমুখ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য