প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের মাত্র এক বছর আগে যুক্তরাষ্ট্রের কয়েকটি অঙ্গরাজ্যভিত্তিক ‘গুরুত্বপূর্ণ’ নির্বাচনে জয় পেয়েছে ডেমোক্র্যাটরা। রক্ষণশীল প্রাধান্যের অঙ্গরাজ্য কেন্টাকির গভর্নর নির্বাচনে তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতার পর জয়ী হয়েছেন ডেমোক্র্যাট অ্যান্ডি বেশার। এছাড়া ২০ বছরের বেশি সময়ের মধ্যে প্রথমবারের মতো ভার্জিনিয়া আইনসভার পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ এসেছে ডেমোক্র্যাটদের হাতে। যদিও মিসিসিপি গভর্নর নির্বাচনে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের পর ক্ষমতা ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছে রিপাবলিকানরা। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে আগে এসব ভোটের ফলাফল ডোনাল্ড ট্রাম্পের জন্য বড় ধরনের ধাক্কা হিসেবে দেখা হচ্ছে।

২০১৬ সালের ৮ নভেম্বর অনুষ্ঠিত সর্বশেষ প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ী হয়ে ক্ষমতায় আসেন রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। আগামী বছর শেষ হবে তার মেয়াদ। এরইমধ্যে নানা অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক নীতির কারণে সমালোচনার মুখে পড়েছেন তিনি। ফলে আগামী বছরের নতুন নির্বাচনের আগে বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যের এইসব নির্বাচনকে গুরুত্ব দিয়ে দেখছেন অনেকেই।

কেন্টাকি অঙ্গরাজ্যে ক্ষমতাসীন রিপাবলিকান গভর্নর ম্যাট বেভিনকে চূড়ান্ত গণনায় দশমিক ৪ শতাংশ ভোট ব্যবধানে হারিয়ে জয়ী হয়েছেন ডেমোক্র্যাট অ্যান্ডি বেশার। ৫২ বছর বয়সী বেভিন সুনির্দিষ্ট অভিযোগ দায়ের করতে না পারলেও অনিয়মের অভিযোগ তুলে পরাজয় মেনে নিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। তবে বেশার বলেছেন, দায়িত্ব নেওয়ার জন্য প্রস্তুত হচ্ছেন তিনি। ৪১ বছর বয়সী আইনজীবী বেশারের বাবাও এই অঙ্গরাজ্যের গভর্নর ছিলেন।

কেন্টাকি অঙ্গরাজ্যের পরাজয় প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের জন্যও বড় ধাক্কা হিসেবে দেখা হচ্ছে। গত সোমবার রাতেও কেন্টাকিতে বেভিনের এক প্রচারসভায় অংশ নেন ট্রাম্প। সেখানে হাজার হাজার সমর্থকের উদ্দেশে তিনি বলেন, বেভিনের পরাজয় হলে সমালোচকেরা একে বিশ্বের ইতিহাসে অন্যতম বড় পরাজয় হিসেবে চিত্রিত করবে। ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে কেন্টাকিতে জয় পেয়েছিলেন ট্রাম্প। তিনি বলেন, এই অঙ্গরাজ্যের গভর্নর হিসেবে ডেমোক্র্যাট বেশার চরম বিপদজনক হবেন। কেন্টাকির গভর্নর নির্বাচনে পরাজিত হলেও অঙ্গরাজ্যের আরও পাঁচটি গুরুত্বপূর্ণ পদে জয় পেয়েছে রিপাবলিকানরা। এর মধ্যে অ্যাটর্নি জেনারেলের পদও রয়েছে।

এদিকে ভার্জিনিয়ায় রিপাবলিকানদের আধিপত্য গুড়িয়ে দিয়ে অঙ্গরাজ্যের আইনসভার দুই কক্ষের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নিয়েছে ডেমোক্র্যাটরা। সেখানকার পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষে প্রথমবারের মতো নির্বাচিত হয়েছে ট্রান্সজেন্ডার ড্যানিকা রোয়েম। আর সিনেটে প্রথমবারের মতো মুসলিম নারী হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন গাজালা হাশমি। এই নির্বাচনের প্রচারণায় প্রার্থীদের সঙ্গে অংশ নেন আগামী বছরের সম্ভাব্য ডেমোক্র্যাট প্রেসিডেন্ট প্রার্থী জো বাইডেন।

এদিকে মিসিসিপির গভর্নর নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট জিম হুডকে হারিয়ে রিপাবলিকানদের ক্ষমতা ধরে রেছেন টেট রিভস। দুই দশকেরও বেশি সময় ধরে এই অঙ্গরাজ্যের গভর্নরের কার্যালয়ের নিয়ন্ত্রণ রয়েছে রিপাবলিকানদের হাতে।

এসব নির্বাচনের ফলাফলের প্রতিক্রিয়ায় এক টুইট বার্তায় প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প কেন্টাকি ও মিসিসিপিতে রিপাবলিকানদের ফলাফলের প্রশংসা করেন। মিসিসিপির নতুন গভর্নর টেট রিভসকে অভিনন্দন জানান তিনি। আর বেভিনের পরাজয়ের বিষয়ে ট্রাম্পের ২০২০ সালে প্রচারণা ব্যবস্থাপক বলেছেন, প্রেসিডেন্ট তার নির্বাচনি প্রচারণায় অংশ নিয়েছেন বলে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে সমর্থ হয়েছেন তিনি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য