সমর্থক সেজে আসা এক ব্যক্তির ছুরিকাঘাতে আহত হয়েছেন হংকংয়ের বেইজিংপন্থি একজন আইনপ্রণেতা।

বুধবার হংকংয়ের রাস্তায় নির্বাচনী প্রচার চালানোর সময় আইনপ্রণেতা জুনিয়াস হো এর ওপর হামলা হয় বলে জানিয়েছে বিবিসি। চলতি মাসের শেষ দিকে হংকংয়ে নির্বাচন হওয়ার কথা আছে।

অনলাইনে পোস্ট করা ফুটেজের বরাতে বিবিসি জানিয়েছে, রাস্তায় প্রচারণা চালানোর সময় নীল টি-শার্ট ও মাথায় উল্টা করে ক্যাপ পরা এক ব্যক্তি ফুল নিয়ে হোয়ের কাছে আসে, হো ফুল নেওয়ার আগে ওই ব্যক্তি ‘প্রত্যেকেই আপনার উদ্যোগ দেখেছে’ বলে মন্তব্য করে।

ফুল দেওয়ার পর সে একটি ছবি তুলতে চায় জানিয়ে বলে, “আমার মোবাইলটি বের করি।”

এই বলে নিজের কাছে থাকা ব্যাগে হাত ঢুকিয়ে ছুরি বের করে হোয়ের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে সে।

এরপর ছুরির আঘাতে আহত হো ও তার সঙ্গে থাকা অন্যান্যদের মাটিতে ওই ব্যক্তির সঙ্গে ধস্তাধস্তি করতে দেখা যায়।

ঘটনার পর আহত হোকে অ্যাম্বুলেন্সে করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এ ঘটনায় আরও দুই ব্যক্তি জখম হয়েছেন বলে জানা গেছে।

পুলিশ এক সন্দেহভাজনকে গ্রেপ্তার করার কথা জানিয়েছে। আহত তিন জনের অবস্থা স্থিতিশীল আছে বলেও জানিয়েছে।

হামলার পর প্রকাশিত এক বিবৃতিতে হো বলেছেন, “কালো শক্তিগুলো সরকারপন্থি প্রার্থীদের লক্ষ্যস্থল করছে। আমি কাউকে ভয় পাই না।”

জুনে শুরু হওয়া হংকংয়ের সরকারবিরোধী প্রতিবাদ এখন প্রত্যেক সাপ্তাহিক ছুটির দিনেই হচ্ছে আর পুলিশ ও প্রতিবাদকারীরা ক্রমেই আরও সহিংস হয়ে উঠছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

নগরীর যে সব দোকানপাট ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে বেইজিংপন্থি বলে বিবেচনা করা হচ্ছে সেগুলোতে নিয়মিত হামলা চালানো হচ্ছে।

পাশাপাশি মূল প্রতিবাদের বাইরে থাকা দল বা ব্যক্তির ওপর হামলার ঘটনাও বেড়ে গেছে।

গত সাপ্তাহিক ছুটিতে একটি শপিং মলে গণতন্ত্রপন্থিদের এক প্রতিবাদে হওয়া ছুরি হামলায় অন্তত পাঁচ জন আহত হন। হামলাকারীরা চলে যাওয়ার সময় স্থানীয় এক কাউন্সিলর তাদের আটকানোর চেষ্টা করলে তার ওপরও হামলা হয়। হামলাকারীদের একজন কামড় দিয়ে তার কানের একটি অংশ ছিড়ে নেয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য