মোঃ জাকির হোসেন, সৈয়দপুর (নীলফামারী) সংবাদদাতা ॥ সৈয়দপুর বিমানবন্দরে নির্ধারিত সময়ে ফ্লাইট না আসায় তিনটি কোম্পানীর এয়ারক্রাফটে ঢাকায় যাওয়ার জন্য আগত যাত্রীরা দূর্ভোগে পড়েছে। ২ নভেম্বর শনিবার সকালে নভো এয়ারের একটি ফ্লাইট প্রায় ২ ঘন্টা বিলম্বে আসে। এসময় শতাধিক যাত্রী ভোগান্তি পোহায়ে অবশেষে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়।

একইভাবে বিকালে একই কোম্পানীর আরেকটি ফ্লাইট পৌনে একঘন্টা বিলম্বে আসে এবং সৈয়দপুর ছেড়ে যায়। এতে ভোগান্তিতে পড়ে অপেক্ষমান যাত্রীরা। ঢাকা শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নৌবাহিনীর প্রশিক্ষণ মহড়া চলার কারনে এমনটি হয়েছে বলে বিভিন্ন সূত্র থেকে জানা গেলেও বিলম্বের কারণ সম্পর্কে সৈয়দপুর বিমানবন্দর ম্যানেজার কিছুই জানেনা।

এদিকে ইউএস বাংলার একটি ফ্লাইট বিকালে আসার কথা থাকলেও সন্ধা পেরিয়ে রাত হয়েও দেখা নেই। বিমানবন্দরের প্যাজেঞ্জার লাউন্সে অপেক্ষমান যাত্রীরা প্রায় ৩ ঘন্টা অপেক্ষা করেও কোন সঠিক উত্তর পাচ্ছেন না কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে।

সন্ধায় সরেজমিনে গিয়ে বিমানবন্দরে দেখা যায় অসংখ্য যাত্রী ফ্লাইটের অপেক্ষায়। ইউএস বাংলার একটি ফ্লাইট বিকাল ৪ টায় আসার কথা থাকলেও তা সন্ধা ৭ টায় আসবে বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন।

এ ব্যাপারে সৈয়দপুর বিমানবন্দর ম্যানেজার সুশান্ত দত্তের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, সকালে বা বিকালে কোন ফ্লাইট বিলম্বে এসেছে বা চলে গেছে এ ধরণের কোন তথ্য তার জানা নেই। একইভাবে ৪টার ইউএস বাংলার ফ্লাইট সন্ধা ৭টায় আসবে এমন খবরও তিনি জানেন না।

একইদিনে ৩ টি ফ্লাইটের দীর্ঘ বিলম্বের কারণে প্রায় সহ¯্রাধিক যাত্রী ভোগান্তিতে পড়েন এবং অসহনীয় অপেক্ষার পর সকালে ও বিকালে নভো এয়ারের যাত্রীরা যেতে পারলেও ইউএস বাংলার যাত্রীরা আদৌ যেতে পারবেন কি না এ নিয়ে চরম সংশয়ে আছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য