মোঃ জাকির হোসেন, সৈয়দপুর (নীলফামারী) সংবাদদাতা ॥ নীলফামারীর সৈয়দপুরে ধলাগাছ কয়াকিসামতপাড়া থেকে জুয়া খেলা অবস্থায় গভীর রাতে আটক ৮ তরুণকে পৃথক পৃথক মেয়াদে কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত। ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) পরিমল কুমার সরকার ৩১ অক্টোবর (বুধবার ৩০ অক্টোবর দিবাগত রাতে) ওই দন্ডাদেশ দেন।

দন্ডপ্রাপ্তরা হলো- কয়াকিসামতপাড়া এলাকার ইব্রাহিম আলীর ছেলে মোঃ সাদ্দাম হোসেন (২৮), মোঃ জমশেদ আলীর ছেলে মোঃ আরিফ (২৫), তছলিম উদ্দিনের ছেলে ইদ্রিস আলী (৪০), মৃত হাসানের ছেলে মাহমুদ আলী (৩৫), আনছার আলীর ছেলে আঃ মজিদ (৩৪) প্রত্যেককে ১৮৬৭ সালের জুয়া আইনের ৪ ধারায় ১ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড এবং সুলতানের ছেলে মোঃ টিপু (২২), মৃত কবিরের ছেলে রাজা ইসলাম (২৩) কে ৭ দিনের ও মৃত তছলিমের ছেলে ইমান আলী (৪০) কে একই আইনে ৩ দিনের বিনাশ্রম দন্ডাদেশ দেন প্রদান করা হয়েছে।

সৈয়দপুর থানার এসআই ইমাদ উদ্দিন জানান, আসামীদের রাত ৩ টার দিকে শহরের ধলাগাছ কয়াকিসামত পাড়ায় অবস্থিত জনৈক সাদ্দাম হোসেনের চায়ের দোকান থেকে আটক করা হয়। তারা প্রত্যেকে টাকা ও তাস দিয়ে জুয়া খেলায় মগ্ন ছিল। এমতাবস্থায় বিচারক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) এর উপস্থিতিতে সঙ্গিয় ফোর্স নিয়ে জুয়া খেলা অবস্থায় হাতেনাতে আটক করা হয় তাদের।

এ সময় তাদের কাছ থেকে জুয়া খেলার সরাঞ্জাম তাস ও টাকা উদ্ধার করা হয়। পরে আটককৃত জুয়াড়িদের ভ্রাম্যমান আদালতে হাজির করা হয়। ভ্রাম্যমান আদালতে বিচারক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) জুয়ার খেলার অপরাধে আটক তরুণদের আলাদা আলাদা মেয়াদে কারাদন্ড প্রদান করেন।

বিচারক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) পরিমল কুমার সরকার জানান, শহরের শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখতে এবং অপরাধ দমনে ভ্রাম্যমান আদালত সদা সক্রিয় আছে এবং থাকবে। এই জুয়ার কারনে অনেক সুখি সংসারে অশান্তি দেখা দিচ্ছে। সেই লক্ষ্যে গভীর রাত হলেও ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে অপরাধীদের আইনানুযায়ী বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দেওয়া হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য