আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধাঃ মুজিব বর্ষকে সামনে রেখে গাইবান্ধা পৌরসভা পৌরবাসিদের উন্নত নাগরিক সেবা প্রদানের বিশেষ কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। বৃহস্পতিবার গাইবান্ধা পৌরসভা মিলনায়তনে মেয়র অ্যাড. শাহ মাসুদ জাহাঙ্গীর কবীর মিলন এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এই কর্মসূচির আনুষ্ঠানিক ঘোষণা করেন।

প্রেস ব্রিফিংয়ে উল্লেখ করা হয়, আগামী ১৭ মার্চ ২০২০ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত মুজিব বর্ষকে সামনে রেখে গাইবান্ধা পৌরসভা নাগরিকদের উন্নতমানের সেবা প্রদান অব্যাহত রাখবে। এই সেবা প্রদান নিশ্চিত করতে পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে নির্ধারিত কর্মকর্তা ও কর্মচারিরা নাগরিক সেবার অভিযোগ গ্রহণ ও নিষ্পত্তির প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। প্রতিটি ওয়ার্ডে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারিগন সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত এবং বিকাল ৫টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত পৌরবাসিদের সেবায় নিয়োজিত থাকবেন বলে জানানো হয়।

পৌর মেয়র মিলন তাঁর বক্তব্যে এই উদ্যোগ সুষ্ঠুভাবে বাস্তবায়নে পৌরবাসি, সাংবাদিকসহ সংশ্লিষ্ট সকলের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন। যাতে পৌরসভার সেবা প্রদানকারিরা তাদের দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করতে সক্ষম হয়। এসময় বক্তব্য রাখেন প্যানেল মেয়র জিএম চৌধুরী মিঠু, প্যানেল মেয়র তানজিমুল ইসলাম পিটার এবং কাউন্সিলরদের মধ্যে কামাল হোসেন, শহীদ আহমেদ, রকিবুল হাসান সুমন, কামাল আহমেদ, সেলিনা আকতার রতœা, লাকি সুলতানা প্রমুখ।

প্রেস ব্রিফিংয়ে প্রতিটি ওয়ার্ডের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারিদের নামের তালিকা উপস্থাপিত হয়। দায়িত্ব প্রাপ্ত কর্মকর্তারা হলেন ১নং ওয়ার্ডে মো. শাহ আলম, ২নং ওয়ার্ডে রবিউল ইসলাম, ৩নং ওয়ার্ডে মো. মধু মিয়া, ৪নং ওয়ার্ডে বিপুল কুমার সাহা, ৫নং ওয়ার্ডে উত্তম কুমার সরকার, ৬নং ওয়ার্ডে অমিতাভ চক্রবর্ত্তী, ৭নং ওয়ার্ডে আবু হোসেন, ৮নং ওয়ার্ডে আব্দুল আহাদ, ৯নং ওয়ার্ডে রায়হান মিয়া। এছাড়া রেললাইনের পশ্চিম পাশে পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতার জন্য দায়িত্ব অর্পন করা হয়েছে যুধিষ্ঠির চন্দ্র সরকার ও আতিয়ার রহমানকে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য