সেদিন বোধহয় আর বেশি দূরে নেই, যে পথে হাঁটছেন ভারতের কর্ণাটকের বিজেপি মুখ্যমন্ত্রী বি এস ইয়েদুরাপ্পা, তাতে কিছুদিনের মধ্যেই স্কুল পাঠ্য থেকে মুছে যাবেন আঠারো শতকের দেশশাসক টিপু সুলতান। কোডাগুর বিজেপি বিধায়কের পরামর্শেই নাকি এই পদক্ষেপ নিতে চলেছেন তিনি।

ইয়েদুরাপ্পার এই পদক্ষেপকে বিজেপির সাম্প্রতিক সবচেয়ে বড়ো দুর্বল কর্মকাণ্ড বলে অভিহিত করেছে বিরোধী দল কংগ্রেস। একই সঙ্গে শোনা যাচ্ছে, এ বছর ১০ নভেম্বর সুলতানের জন্মজয়ন্তী পালন থেকেও বিরত থাকবে কর্ণাটক সরকার।

‘মহীশুরের বাঘ’ বলে পরিচিত টিপু সুলতান কোডাগুসহ সমগ্র কর্ণাটকের গর্ব হিসেবে বরাবর পূজিত হয়ে আসছেন। কংগ্রেস ক্ষমতায় থাকার সময় এই ঐতিহাসিক ব্যক্তিত্বকে শৌর্য ও সাহসের অন্যতম প্রতীক হিসেবে আখ্যা দিলেও বিজেপি টিপুকে অত্যাচারী, ক্ষমতালোভী শাসক হিসেবে দেখে। তাই তার জন্মজয়ন্তী পালন বন্ধ করতে চলেছে সে রাজ্যের শাসক দল।

সাংবাদিকদের কাছে ইয়েদুরাপ্পা জানিয়েছেন, জন্মজয়ন্তী পালন বন্ধের পাশাপাশি স্কুলের ইতিহাস বই থেকেই সরিয়ে ফেলা হবে টিপু সুলতানকে। খবর, বিধায়ক আপ্পাচু রাজনের বিধান মেনেই নাকি টিপু সুলতানের অস্তিত্ব মুছে ফেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী।

রাজ্য কংগ্রেসের মুখ্য আধিকারিক দীনেশ গুন্ডু রাও জানিয়েছেন, তার মতে বিজেপির এই পদক্ষেপ মস্ত বড়ো ভুল। তার দাবি, প্রয়াত প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি আবদুল কালামও বিশেষ সম্মান করতেন টিপু সুলতানের শৌর্য-বীর্যকে। সূত্র: এনডিটিভি

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য