অনেক তর্ক-বিতর্কের পর অবশেষে ব্রেক্সিট চুক্তি পেছানোর ব্যাপারে সম্মত হয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন(ইইউ)। সোমবার দুপুরে এক টুইটবার্তায় ইইউ প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড টুস্ক জানিয়েছেন, ব্রেক্সিট বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে পৌঁছানোর জন্য আগামী ২০২০ সালের ৩১ জানুয়ারী পর্যন্ত অপেক্ষা করতে রাজি হয়েছে ইইউ। খবর বিবিসির।

ডোনাল্ড টুস্ক আরও জানিয়েছেন, যদি নির্ধারিত সময়ের আগে ব্রিটেনের সংসদ ব্রেক্সিট ইস্যুতে সর্বসম্মতিক্রমে কোন চুক্তি অনুমোদনে সমর্থ হয়, তবে তারা চাইলে ৩১ জানুয়ারীর আগেও ইউরোপীয় ইউনিয়ন ত্যাগ করতে পারবে।

আগামী ১২ ডিসেম্বর ব্রিটেনের সংসদ সদস্যরা প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের দেয়া প্রস্তাবসমূহের পক্ষে-বিপক্ষে ভোট দেবেন। ব্রিটিশ সংসদের এই সিদ্ধান্তের ভিত্তিতেই ইউরোপীয় ইউনিয়ন ব্রেক্সিট চুক্তি আগামী বছরের ৩১ জানুয়ারী পর্যন্ত পেছাতে রাজি হয়েছে।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের ২৭ জন প্রতিনিধির এই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ইউনিয়ন থেকে একবার বেরিয়ে যাবার পর ব্রিটেন ভবিষ্যতে ফের কখনও এই ব্লকে ফিরতে পারবে না।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার দেশটির ইউনিয়ন ত্যাগ করার কথা ছিল। কিন্তু, ব্রেক্সিট ইস্যুতে একটি চুক্তি অনুমোদনে সর্বসম্মতি আদায়ে ব্যর্থ হয় ব্রিটিশ পার্লামেন্ট। তাই ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের জন্য চুক্তি পেছানোর ব্যাপারে ইউরোপীয় ইউনিয়নকে অনুরোধ জানানো প্রয়োজন হয়ে পড়ে। অথচ বরিস বরাবরই বলে আসছিলেন, ৩১ অক্টোবর যেভাবেই হোক তিনি ইউনিয়ন থেকে বেরিয়ে আসবেন। কিন্তু ব্রিটিশ বেন অ্যাক্ট অনুযায়ী, এক্ষেত্রে তাকে সংসদের সম্মতি অর্জন করতে হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য