দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট আদর্শ কলেজ দীর্ঘ ১৮ বছরেও এমপিও ভূক্ত না হওয়ায় ওই কলেজের শিক্ষক-কর্মচারীরা মানবেতর জীবন যাপনসহ ধুকে ধুকে মৃত্যুর দিকে ধাবিত হচ্ছে। ইতোমধ্যেই কয়েকজন শিক্ষক কর্মচারী মৃত্যু বরন করছেন।আবার কেউ অর্থাভাবে বিনা চিকিৎসায় পঙ্গুত্ব বরন করেছে। কেউ গৃহহারা হয়েছেন।

কলেজের প্রভাষক মিজানুর রহমানন জানান, এলাকার কতিপয় শিক্ষানুরাগী ব্যাক্তি এবং আমরা কয়েকজন শিক্ষিত বেকার উচ্চ শিক্ষার প্রসার ঘটানোর লক্ষে ২০০১ সালে ঘোড়াঘাট শহরের উপকন্ঠে একটি আদর্শ কলেজ নামে এক একর ৪৭শতক জমিতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলেন। প্রতিষ্ঠাকাল থেকেই কলেজটির পড়াশুনার দিক থেকে উপজেলায় শুনাম রয়েছে। দীর্ঘদিনে কলেজটি এম পি ও ভূক্ত না হওয়ায় জিবিকার তাগিদে ৩ জন শিক্ষক অন্যত্র চলে যান।

অন্যান্য শিক্ষক কর্মচারী বিনা বেতন ভাতায় কর্মরত থেকে মানবেতর জীবন যাপন করছেন। শিক্ষকদের মধ্যে মাহবুবুল আলম (জীব বিজ্ঞান) ও কর্র্মচারী সিরাজুল ইসলাম অসুস্থ হয়ে পক্ষাঘাতগ্রস্থ হয়েছেন। পাারিবারিক অর্থনৈতিক দৈনদশার কারনে শিক্ষক উজ্জল কুমার মোহন্ত গৃহহারা হয়েছেন।

দেশের সর্বোচ্চ ডিগ্রীধারী হয়েও বেতন ভাতা না পেয়ে অভাব অনটনের মধ্যে অসহনীয় জীবন যাপন করছেন তারা।

তিনি আরোও জানান,কলেজের ১৯৬ জন ছাত্রছাত্রী রয়েছে। প্রতি বছর পরীক্ষার ফলাফল ভালো করছে। এ ব্যপারে সংশ্লিষ্ট বিভাগের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন অভিভাবক, শিক্ষক-কর্মচারীরা ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য