ansসংবাদ বিজ্ঞপ্তি ॥ দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আইন শৃঙ্খলা রক্ষার কাজে দায়িত্ব পালনকারী প্লাটুন কমান্ড্যান আব্দুল ওয়াহেদ ৫ জানুয়ারী ভোটকেন্দ্রে দায়িত্ব পালনরত অবস্থায় দূবূত্তদের হাতে নিহত হন। মরহুম পিসি আব্দুল ওয়াহেদের দুই মেয়ে ও এক পুত্র সন্তান রয়েছে। তার কোন বসত ভিটা কিংবা জমি জায়গা নেই। দিনাজপুর আনসার ভিডিপির উপ-পরিচালক ও জেলা কমান্ড্যান্ট এ,কে,এম জিয়াউল আলমের ঐকান্তিক প্রচেষ্টা ও আন্তরিকতায় উক্ত পিসি’র স্ত্রী মোছাঃ আনোয়ারা খাতুনকে নিজ এলাকাধীন ২৫ শতাংশ খাস জমি বন্দোবস্তের কাগজ পত্রাদী যা দলিল নং- ২৭০৭, ২৪ এপ্রিল দিনাজপুর জেলা আনসার ও ভিডিপি কার্যালয়ের অনুষ্ঠানিকভাবে হস্তান্তর করেন। এ সময় পার্বতীপুর উপজেলা আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক প্রামানিক পি,এ,এম সহ জেলা ও উপজেলা  পর্যালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন। সরকারী দায়িত্ব পালনে মরহুম পিসি আব্দুল ওয়াহেদ এর পরিবারের জন্য বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী সংগঠন হতে আনসার ও ভিডিপি একাডেমীতে অনুষ্ঠিত জাতীয় সমাবেশ ২০১৪ এ মহাপরিচালক মহোদয় তার স্ত্রী মোছাঃ আনোয়ারা খাতুনকে ৫ লক্ষ টাকা আর্থিক অনুদান ও মরহুম পিসি আব্দুল ওয়াহেদকে মরনোত্তর বাংলাদেশ আনসার পদক ও ১ লক্ষ টাকা সন্মানি ভাতা প্রদান করেছেন। এ ছাড়াও বাংলাদেশ পুলিশ বিভাগের আই,জি,পি ২ লক্ষ টাকা এবং দিনাজপুর পুলিশ সুপার ৫৫ হাজার টাকা অর্থিক অনুদান দিয়েছেন। উল্লেখ্য মরহুম পিসি আব্দুল ওয়াহেদের মৃত্যুর পর হতে দিনাজপুর আনসার ভিডিপির উপ-পরিচালক ও জেলা কমান্ড্যান্ট এ,কে,এম জিয়াউল আলম ও পার্বতীপুর উপজেলা আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা, আব্দুর রাজ্জাক প্রমানিক পিএএম তার রেখে যাওয়া পরিবারকে অর্থিক অনুদান বস্ত্র প্রদান নানাবিধ পরামর্শ সহযোগিতা  করে আসছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য