05 Rani-Adittoশেষ পর্যন্ত সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে রানি মুখাজির্র বিয়েটা হয়েই গেল সোমবার সন্ধ্যায়। তারিখ ছিল ২১ এপ্রিল। মঙ্গলবার সকাল থেকেই এই বিয়ে নিয়ে সারাদেশেই বিনোদন মিডিয়ার ব্যাপক আলোচনা। তবে নবদম্পতির ঘনিষ্ঠ সূত্রে নতুন খবর হল, রানি মুখোপাধ্যায় এবং আদিত্য চোপড়া দু’জনেই এখন কয় দিনের জন্য ইতালিতে থাকবেন। এরপর তাঁরা উড়ে যাবেন সুইস অ্যাল্পস বা প্যারিসে। হ্যা, হানিমুন পালন করতেই তারা সেখানে যাচ্ছেন। তাই কেউ যদি এই নবদম্পতিকে সুইস অ্যাল্পস-এ দেখেন আগামী ক’দিনের মধ্যে, তা হলেও অবাক হওয়ার কিছু নেই।

মুম্বাইয়ে ফিরে আসার পর রানি তাঁর বিয়ের রিসেপশন পার্টি থ্রো করবেন তাঁর সহকর্মী এবং বন্ধুদের জন্য। বলাই বাহুল্য আগামী দিনে মুম্বাই শহরের সবচেয়ে বড়, এবং সবচেয়ে তারকাখচিত পার্টি হতে চলেছে এই রিসেপশন। এখনও পর্যন্ত যা শোনা যাচ্ছে, আন্ধেরির যশরাজ কমপাউন্ডস অথবা বান্দ্রার তাজ ল্যান্ডস এন্ড-এই হবে এই রিসেপশন। ওদিকে সদ্য বিবাহিত দম্পতি এসব থেকে বহু দূরে, ইটালিতে দিব্য নিশ্চিন্তে বিয়ে করে, সেই খবর চেনাজানা, বন্ধুবান্ধব সকলকে দিয়ে কোলাহল থেকে বহুদূরে শান্তিতেই আছেন। তবে এটুকু বলেই দিচ্ছেন রানি, যে ‘ইটালিতে হঠাৎ বিয়ে’ বলে কিছু-কিছু সংবাদমাধ্যমে যে প্রচার হচ্ছিল মঙ্গলবার সকাল থেকে, সেটা মোটেও ঠিক নয়। একেবারে ভেবেচিন্তে, রীতিমতো প্ল্যান করে ইটালিতে বিয়ে করেছেন যশরাজ ফিল্মস-এর কর্ণধার আদিত্য আর রানি। টিনসেল টাউনে কাজ করতে করতে বাঙালি মেয়ের বিয়ে করে মুম্বাতেই সংসারি হওয়ার যে লম্বা তালিকা আছে, তাতে লেটেস্ট অ্যাডিশন হল মুখুজ্জ্যে বাড়ির কন্যার নামটি।

রানির কথামতো তিনি এই মুহূর্তে প্রস্তুতি নিচ্ছেন তাঁর বরাবরের স্বপ্ন-বিবাহিত জীবন-উপভোগ করতে। মঙ্গলবার সকালেই রানি জানিয়েছিলেন, “রোমের কাছে ইটালিয়ান কান্ট্রিসাইডে এই বিয়ের অনুভূতি খুব সুন্দর দারুণ। যা তাঁর জীবনে লাইফটাইম এক্সপেরিয়েন্স। বিয়ের মুহূর্তগুলো আমার জীবনে রূপকথার মতোই মনে হল, আর আমি সেই রূপকথায় গা ভাসিয়ে দিলাম। এটা সত্যিই সেই রূপকথার গল্প, যার জন্য আমি সারা জীবন অপেক্ষা করে ছিলাম। “

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য