ভূরুঙ্গামারী কুড়িগ্রাম পাকা সড়কে নছিমন, ভটভটি ও অটোরিক্সা চলাচল বন্ধের দাবিতে আজ সোমবার কুড়িগ্রাম মোটর মালিক সমিতির ডাকে বাস চলাচল বন্ধ ছিল। কোন প্রকার প্রচারণা না করেই হঠাৎ বাস বন্ধের কারণে তিন উপজেলার হাজার হাজার যাত্রী দুভোগের স্বীকার হন। ভূরুঙ্গামারী বাস টার্মিনালে বাসের শ্রমিকরা টায়ার পুড়িয়ে অবরোধ করে কয়েকটি অটোরিক্সা ভাংচুর করে। জানা গেছে , জয়মনির হাট বিদ্যুৎ সাব ষ্টেশনের সন্নিকটে সকাল ১০.১০ মিনিটের দিকে ফাহিম এন্টারপ্রাইজ নামীয় একটি পিকআপ ভ্যানে ১০/১৫ জন শ্রমিক লাঠি ও গাছের ডাল হাতে নিয়ে একটি চলন্ত অটোরিক্সার উপর একজন যাত্রীকে আহত করে। এ ব্যাপারে উত্তর ধরলা মোটর মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক স্বপন কুমার সাহা জানান, প্রধান সড়কে ভটভটি, নছিমন ও অটোরিক্সা বন্ধের দাবিতে আমরাও সমর্থন দিয়েছি। দীর্ঘদিন ধরে কুড়িগ্রাম মোটর মালিক সমিতি ও উত্তর ধরলা মোটর মালিক সমিতির দ্বন্দ্বের কারণে হর হামেশাই বাস চলাচল বন্ধ থাকে। এতে হয়রানির স্বীকার হয় সাধারণ যাত্রী। গোপন সূত্রে জানা গেছে, প্রধান সড়কে বাস ছাড়া অন্য যাত্রী পরিবহন চলার কারণে বাস ব্যবসায় লাভ হচ্ছে না। এ কারণেই যাত্রী দুর্ভোগের চিন্তা না করে নছিমন, ভটভটি ও অটোরিক্সা বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে কুড়িগ্রাম মোটর মালিক সমিতি। যাত্রীদের হয়রানি বন্ধে প্রশাসনের পদক্ষেপ আশু প্রয়োজন বলে মনে করেছেন এলাকার সচেতন মহল।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য