কুড়িগ্রামের রাজিবপুর উপজেলার হাট বাজারে ১ টাকায় পাওয়া যাচেছ ৫কেজি মূলা। ফলে চাষীরা মূলা হাট বাজারে না নিয়ে গরু-মহিষকে দিয়ে খাওয়াচেছন। ইদানিং গরু -মহিষ ও মূলা খাচেছনা বলে জানান চাষীরা।রাজিবপুর উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের অসংখ্য সবজি চাষী মূলা নিয়ে বিপাকে পরেছেন। গতবার ১ মূলা বিক্রি করেছেন ২৫থেকে ৩০ টাকায়। বেশি দাম পাওয়ার আশায় এ বছর গ্রামের অনেক কৃষক মূলা চাষে ঝুঁকে পরে। ফলনও হয়েছে গতবারের তুলনায় প্রচুর। কিন্তু দাম না থাকায় আসল-ফসল সবই গেল তাদের। বালিয়ামারী গ্রামের আলম মিয়া বলেন এ বার প্রথম ১ মূলা ১০ টাকা পর্যন্ত বিক্রি করেছি। গত কয়েক দিন হল মূলা বাজারে নেই না। ১ ভ্যান গাড়ি মূলা বাজারে নিলে ৫০ টাকাও হয় না। বিক্রি করার পরিবর্তে গরুকে মূলা খাওয়াচিছ। কিন্তু গরুও আর মূলা খায় না। বাঁধ্য হয়ে মাটিতে পুঁতে রেখে জমির আগাছা মুক্ত করছি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য