ভারতের রাজধানী দিল্লীতে জইশ-ই-মহম্মদ জঙ্গিগোষ্ঠির ৪ জন সদস্য ঢুকে পড়েছে বলে গোয়েন্দা সূত্রে জানা গেছে। চলমান দুর্গাপূজা ও রামলিলাকে কেন্দ্র করে তারা আত্মঘাতী হামলা চালাতে পারে বলে সন্দেহ করছে দেশটির গোয়েন্দারা। ভারতীয় গণমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস জানিয়েছে, এ খবরে রাজধানী জুড়ে লাল সতর্কতা বা কড়া সতর্কতা জারি করেছে ভারত সরকার।
দেশের গোয়েন্দা সূত্রে পাওয়া খবরের ভিত্তিতে নিরাপত্তাবাহিনী জানিয়েছে, পাকিস্তান ভিত্তিক জইশ-ই-মহম্মদের ৪ জন জঙ্গি দিল্লীতে প্রবেশ করেছে এবং উৎসবের সময়েই সেখানে হামলা চালানোর পরিকল্পনা করছে।

গতকাল (বুধবার) সন্ধ্যায় রাজধানীতে জঙ্গিদের উপস্থিতি সম্পর্কে দিল্লী পুলিশের একটি বিশেষ সেল একটি সতর্কবার্তা পায়। এই সতর্কতার পরেই দিল্লি জুড়ে চিরুনি তল্লাশি শুরু হয়েছে। দিল্লির ঘনবসতিপূর্ণ এলাকাগুলোতে ওই চারজনের খোঁজে তল্লাশি চলছে।

নিরাপত্তা সংস্থাগুলি জানায়, ৩৭০ ধারা রদ করে জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা অবলুপ্তি করা এবং রাজ্যটিকে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে বিভক্ত করার কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে প্রতিশোধ নেওয়ার জন্যেই এই সন্ত্রাসী হামলার ছক কষা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এবং জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালকে লক্ষ্য করে হামলা চালাতে পারে সন্ত্রাসবাদীরা। এই পরিকল্পনার আগাম আভাস পেয়ে আগেই সতর্কবার্তা জারি করা হয়েছিল। সন্ত্রাসবাদীরা ৩০টি প্রধান শহরের নাম উল্লেখ করে হামলার হুমকি দেওয়ার পরেই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় সমগ্র রাজ্যজুড়ে এ বিষয়ে সতর্কবার্তা দিয়েছে। পাশাপাশি এই হুমকির বিষয়ে সজাগ থাকতে অনুরোধ করা হয়েছে ভারতীয় বিমান বাহিনীকেও।

এদিকে আজ বৃহস্পতিবার চিকিৎসার জন্য দিল্লীতে পা দিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি সেখানে চারদিন অবস্থান করবেন বলে জানা গেছে।

হামলার আশঙ্কায় বিশেষ ‘কমলা সতর্কতা’ জারি করা হয়েছে দেশের সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলিতে। পাশাপাশি শ্রীনগর, অবন্তিপোরা, জম্মু, পাঠানকোট এবং হিন্দনে আইএএফ ঘাঁটিগুলিতে সুরক্ষা আরও জোরদার করা হয়েছে।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এবং গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, জইশ-ই-মহম্মদ জঙ্গিগোষ্ঠী ভারতীয় বিমানঘাঁটিতে ফিঁদায়ে বা আত্মঘাতী হামলার পরিকল্পনা করেছে। সিভিল এভিয়েশন সিকিউরিটি ব্যুরোর হাতে গত ১০ সেপ্টেম্বর তারিখে একটি হুমকি চিঠি আসে। হিন্দিতে লেখা সেই চিঠিতে নিজেকে জইশের এক সদস্য বলে দাবি করা শামসের ওয়ানি হুমকি দিয়েছে যে কেন্দ্রীয় সরকারের ৩৭০ অনুচ্ছেদের সিদ্ধান্তের প্রতিশোধ নেওয়া হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য