ব্রেক্সিট নিয়ে নতুন পরিকল্পনা প্রকাশ করতে যাচ্ছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। মঙ্গলবার দেশটির সরকারি এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

ব্রেক্সিট ইস্যুতে সমঝোতায় পৌঁছাতে ব্যর্থ হয়ে গত মে মাসে পদত্যাগের ঘোষণা দেন যুক্তরাজ্যের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে। তিনি সরে দাঁড়ানোর পর ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন কট্টর ব্রেক্সিটপন্থী বরিস জনসন। নির্বাচিত হওয়ার পর আগামী ৩১ অক্টোবর নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ব্রেক্সিট বাস্তবায়নের ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। প্রয়োজনে চুক্তিহীন ব্রেক্সিট বাস্তবায়নেরও ইঙ্গিত দেন তিনি।

ওই কর্মকর্তা বলেন, একজন মন্ত্রী নতুন পরিকল্পনার ব্যাপারে একটি বিবৃতি দেবেন। ব্রেক্সিট নিয়ে কনজারভেটিভ সরকার বেশ চাপে রয়েছে। পদত্যাগের দাবিও উঠেছে বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর।

সর্বশেষ গত মঙ্গলবার চুক্তিহীন ব্রেক্সিট ঘিরে অচলাবস্থা কাটাতে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের পার্লামেন্ট স্থগিতের সিদ্ধান্তকে বেআইনি বলে রুল জারি করেছেন দেশটির সর্বোচ্চ আদালত। স্থগিতাদেশ অকার্যকর হওয়ায় পার্লামেন্টে ফিরতে শুরু করেন ব্রিটিশ এমপিরা। এমনকি তার পদত্যাগের দাবিও ওঠে। বিরোধী দলীয় নেতা জেরেমি করবিন বলেন, জনসন প্রধানমন্ত্রী হওয়ার যোগ্যতা হারিয়েছেন। তার অবিলম্বে পদত্যাগ করা উচিত।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য