দিনাজপুরের বীরগঞ্জে ছাগলে ধান ক্ষেত খাওয়াকে কেন্দ্র করে ভাতিজার হাতে চাচা খুন হওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

গতরাতে বীরগঞ্জ উপজেলার পলাশবাড়ী ইউনিয়নের ব্রাহ্মণভিটা (হাড়িপুকুর) গ্রামের মদাতি বাজার এলাকায় এঘটনা ঘটেছে।

নিহত রফিকুল ইসলাম ওরফে রইসুল দিনাজপুরের বীরগঞ্জের পলাশবাড়ী ইউপি’র ব্রাহ্মণভিটা (হাড়িপুকুর) গ্রামের অধিবাসী।

স্থানীয়রা ও পুলিশ জানায়, বীরগঞ্জ উপজেলার পলাশবাড়ী ইউপি’র ব্রাহ্মণভিটা (হাড়িপুকুর) গ্রামের চাচা রফিকুল ইসলাম ওরফে রইসুলের একটি ছাগল মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে ভাতিজা সহিদুল ইসলামের ধান ক্ষেতে যায়।

সহিদুলের মা সখিনা বেগম ছাগলটি এনে বাড়িতে বেধে রাখে। চাচি মোছাঃ মেরিনা বেগম ভাতিজার বাড়ি থেকে ছাগলটি নিয়ে এলে সখিনা বেগম ছেলে সহিদুল ইসলামকে ফোনে জানায়। এরপর রাত সাড়ে ৭টার দিকে মদাতি বাজার কোব্বাতের ব্রয়লার মুরগির দোকানে চাচা রফিকুল ইসলাম ওরফে রইসুলকে একাকী পেয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে কিলঘুষি ও লাথি মেরে আহত করে।

আহত অবস্থায় এলাকাবাসী উদ্ধার করে ভ্যানযোগে পল্লী চিকিৎসক পরেশ ডাক্তারের নিকট যায় এবং পল্লী চিকিৎসক রফিকুল ইসলাম ওরফে রইসুলকে মৃত বলে ঘোষণা করে।

এব্যাপারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বীরগঞ্জ সার্কেল মোঃ আবদুল ওয়ারেস, বীরগঞ্জ থানার কর্মকর্তা সাকিলা পারভিন, মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বীরগঞ্জ থানার তদন্ত ওসি বিশ্বনাথ দাস গুপ্ত ও এস.আই এরশাদ হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

বীরগঞ্জ থানার কর্মকর্তা সাকিলা পারভিন এর সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, নিহত রফিকুল ইসলাম ওরফে রইসুলের ছেলে মোঃ মমিনুল ইসলাম বাদি হয়ে মঙ্গলবার রাতেই বীরগঞ্জ থানায় ভাতিজা সহিদুল ইসলামের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে। যাহার মামলা নং-২৪।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য