সুইডেনের কিশোরী জলবায়ু আন্দোলনকর্মী গ্রেটা থানবার্গকে ‘রাইট লাইভলিহুড অ্যাওয়ার্ড’ দেওয়া হচ্ছে। যেটি ‘অল্টারনেটিভ নোবেল প্রাইজ’ নামেও পরিচিত।

এ বছর থানবার্গসহ মোট চারজন এই পুরস্কার পেয়েছেন। বুধবার ‘রাইট লাইভলিহুড ফাউন্ডেশন’ থেকে চার বিজয়ীর নাম ঘোষণা করা হয়।

থানবার্গকে পুরস্কারের জন্য মনোনীত করার কারণ ব্যাখ্যায় ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়, “তিনি বিজ্ঞানের বাস্তবতার ভিত্তিতে জলবায়ু পরিবর্তন রোধে জরুরি ব্যবস্থা গ্রহণের রাজনৈতিক দাবিকে আরো জোরাল এবং বিস্তৃত করেছেন।”

গত সোমবার নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘের জলবায়ু সম্মেলনের শুরুতে এক বক্তৃতায় ১৬ বছরের থানবার্গ জলবায়ু পরিবর্তন রোধে ব্যর্থতার জন্য তীব্রভাষায় বিশ্বনেতাদের নিন্দা জানান।

প্রায় এক বছর আগে জলবায়ু পরিবর্তন রোধে জরুরি ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিতে সুইডেনের পার্লামেন্টের বাইরে একাই প্রতিবাদ জানানো শুরু করেন থানবার্গ।

জাতিসংঘের ৭৪তম সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিতে নিউ ইয়র্কে বিশ্বনেতাদের মিলমেলা বসেছে। জলবায়ু পরিবর্তন রোধে নেতাদের ব্যর্থতা চোখে আঙুল দিয়ে বুঝিয়ে দিতে থানবার্গও সেখানে পৌঁছে গেছেন।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে তাবৎ বড় বড় নেতাদের পাশাপাশি নিয়মিতই খবরের শিরোনাম হচ্ছেন থানবার্গ।

থানবার্গ ছাড়াও ব্রাজিলের আদিবাসী নেতা ডাভি কোপেনাওয়া, চীনে নারী অধিকার নিয়ে কাজ করা আইনজীবী গুও জিয়ানমেই এবং ওয়েস্টার্ন সাহারার মানবাধিকার সুরক্ষা কর্মী আমিনাতোউ হাইদার এই পুরস্কার পেয়েছেন।

বিজয়ী চারজন পুরস্কার হিসেবে ১০ লাখ সুইডিশ ক্রোন (এক লাখ মার্কিন ডলারের বেশি) পাবেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য