আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধাঃ গাইবান্ধার সাদুল্যাপুরে উপজেলার ধাপেরহাটে মঙ্গলবার দুপুরে পুলিশকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগে রাব্বী শাহান পলাশ (৩৪) নামে এক যুবলীগ নেতাকে আটক করেছে পুলিশ।

এঘটনায় স্থানীয় লোকজন ও দলীয় নেতাকর্মী ক্ষুব্ধ হয়ে ধাপেরহাট পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র ঘেরাও করলে পুলিশ তিন রাউন্ড শটগানের গুলি ছুড়ে তাদের ছত্রভঙ্গ করে। আটক রাব্বী শাহান পলাশ ধাপেরহাট ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও ধাপেরহাট পালানপাড়া চাঁন মিয়া ছেলে।

ধাপেরহাট পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র সুত্রে জানা গেছে, ধাপেরহাট বন্দর এর পাশে পালানপাড়ায় মাস্টার হাউস নামে এক বাড়ীতে ভাড়া থাকতেন সহিদ সরকার ও মামুনি আকতার নামে এক ব্যবসায়ী দম্পত্তি। সম্প্রতি তাদের মধ্যে পারিবারিক দন্দ্ব সৃষ্টি হয়।

এ ঘটনায় দুপুরে স্থানীয় কিছু যুবকের সহায়তায় মামুনি আকতার বাড়ীর আসবাবপত্র নিয়ে পিতার বাড়ী যাওয়ার উদ্যোগ নেয়। বিষয়টি নিয়ে সহিদ সরকার পুলিশকে লিখিত অভিযোগ দেন। পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে যুবলীগ নেতা রাব্বী শাহান পলাশ তাদের উপর চড়াও হয় এবং তাদের মধ্যে বাকবিতান্ডা শুরু হয়।

এ সময় পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) আব্দুল আজিজ ঘটনাটি মোবাইলফোনে ভিডিও করতে শুরু করলে যুবলীগ নেতা পলাশ তার মুঠোফোনটি কেড়ে নেন ও তাকে থাপ্পর মারেন। বিষয়টি নিয়ে প্রতিবাদ করলে তাকেও (ইনচার্জ পরিদর্শক নওয়াবুর রহমান) ধাক্কা মারেন। পুলিশ তখন তাকে আটক করে তদন্ত কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়। এসময় স্থানীয় লোকজন ও দলীয় নেতাকর্মীরা তদন্ত কেন্দ্র ঘেরাও করলে ৩ রাউন্ড শর্টগানের গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করা হয়।

তবে যুবলীগ নেতা রাব্বী শাহান পলাশ জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ উপস্থিত হলে তিনি তাদেরকে জানান এটি একটি পারিবারিক বিষয়। আমরা স্থানীয়ভাবে বিষয়টি মিমাংশা করার চেষ্টা করছি। আপনারা চলে যান। কিন্তু তারপরও মোবাইল ফোনে পুলিশ ভিডিও করার চেষ্টা করলে তাদেরকে নিষেধ করেন। কিন্তু এতে পুলিশ উত্তেজিত হয়ে তাকে আটক করে থানায় নিয়ে যান। এদিকে এঘটনায় বিকালে পলাশের মুক্তি ও ধাপেরহাট পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এর অপসারণের দাবিতে স্থানীয় লোকজন ও দলীয় নেতাকর্মী ধাপেরহাটে বিক্ষোভ মিছিল করে।

এব্যাপারে সাদুল্যাপুর থানার ওসি মাসুদ রানা জানান, পরিস্থিতি এখন শান্ত। এছাড়া এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এছাড়া এঘটনায় পুলিশ বাদি হয়ে সরকারী কাজে বাধা ও পুলিশকে মারপিটের অভিযোগে একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য