মাসুদ রানা পলক, ঠাকুরগাঁও: ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার ৫ নং বালিয়া ইউনিয়নের বড় বালিয়া বগুড়া পাড়া গ্রামে ২য় স্ত্রীর হাতে স্বামী খুন হওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

রবিবার দিবাগত রাত ২ঘটিকায় এ ঘটনা ঘটে বলে স্থানীয়দের দাবি। ঘাতক মহিলাকে আটক করে পুলিশ।

স্থানীয় বাসিন্দা ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়,বালিয়া ইউনিয়নের কুমারপুর ডাঙ্গা পাড়ার বাসিন্দা নকিবর ইসলামের ছেলে শরিফুল ইসলাম(৩৮) এর পার্শ্ববতী গ্রামের মজিবর ইসলামের মেয়ে মালেকা বেগম(২৮) এর সাথে ৪ বছর আগে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। বিয়ের পর থেকে তাদের দুজনের মধ্যে চলে ঝগড়া বিবাদ। একে অপরে মেলামিশা না হওয়ায় মামলাও হয় আদালতে। শরিফুল ইসলাম তার ২য় বউ মালেকাকে নিয়ে বগুড়া পাড়া গ্রামে শফিউল এর বাড়ীতে এক মাস আগে বাসা ভাড়া নেয়।

রবিবার দিবাগত রাতে শরিফুল তার ছোট বউ মালেকার কাছে গেলে তাদের দুজনের মধ্যে ঝগড়া হয়। রাত ২টার দিকে শরিফুলের বউ মালেকা বেগমের চিৎকারে এলাকাবাসী ছুটে গিয়ে দেখে শরিফুলকে বিভৃংশভাবে খুন করা। শরিফুল ইসলামের পরিবারের দাবি তার স্ত্রী মালেকা পরিকল্পিত ভাবে তাকে খুন করছে এ ঘটনার সাথে অন্য কেউ জড়িত আছে।

ঠাকুরগাঁও সদর থানার এস আই আহম্মেদ লাশটিকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। এ বিষয়ে ৫ নং বালিয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান নুরে আলম মুক্তি বলেন,শরিফুল ইসলাম নামে যে ব্যক্তিকে খুন করা হয়েছে তা থানায় জানানো হয়েছে। প্রশাসন এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য