দিনাজপুর সংবাদাতাঃ ফুলবাড়ীতে পৌরসভার অপরিকল্পিত ভাবে ড্রেন নির্মান করতে গিয়ে ভেঙ্গে পড়ছে ফুলবাড়ী সরকারী কলেজের ছাত্রাবাসসহ একাধিক কাচা-পাকা ঘরবাড়ী। এদিকে ড্রেন নির্মানে সেচ্ছাচারীা ও স্বজনপ্রীতির অভিযোগ তুলেছেন ভুক্তভুগিগণ।

অপরিকল্পিভাবে ড্রেন খনন করতে গিয়ে ফুলবাড়ী সরকারী কলেজের ছাত্রাবাস ভেঙ্গে পড়ায়, জেলা প্রশাসকসহ সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের নিকট লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন, ফুলবাড়ী সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর নজমুল হক।

এছাড়া রাস্তার জায়গা উদ্ধার ও অপরিকল্পিভাবে ড্রেন নির্মান করার প্রতিবাদ জানিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে জেলা প্রশাসক ও জেলা পরিষদের প্রধান প্রকৌশলী বরাবর অভিযোগ করেছেন পৌর সভার পশ্চিম গৌরীপাড়া গ্রামের সাবেক দুই পৌর কাউন্সিলরসহ গ্রামবাসীরা। একই ভাবে স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয়ে অভিযোগ করেছেন সুজাপুর গ্রামের বাসীন্দা ডাক্তার লিও চৌধুরী। কিন্তু কোন অভিযোগেই কর্নপাত না করে, কতৃপক্ষ চালিয়ে যাচ্ছে তাদের কাজ।

ফুরবাড়ী সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর নাজমুর হক বলেনর দপ্তর থেকে একাধিকবার চিঠি দয়া হলেও পৌরকতৃপক্ষ সেই চিঠির কোন জবাব না দিয়ে আপরিকল্পিত ভাবে ড্রেন খনন করায় ভেঙ্গে পড়েছে কলেজের ছাত্রাবাসের ভবনটি। শুধু তাই নয় ইতিপুর্বেও উত্তর সুজাপুর গ্রামের ড্রেন সরকারী কলেজের প্রাচির ক্ষিতগ্রিস্থ হয়েছে।

এদিকে অপরকিল্পতি ভাবে ড্রেন খনন করে ছাত্রবাস ভেঙ্গে দেয়ার প্রতিবাদে, ফুলবাড়ী সরকারী কলেজের সামনে মাদিলা সড়কের পাশে দাড়িয়ে মানববন্ধন করেছেন, ফুলবাড়ী সরকারী কলেজের শিক্ষক শিক্ষার্থীগণ। এছাড়া সুজাপুর আবাসীক এলাকার কয়েক জন বাসীন্দা বলেন ওই এলাকায ড্রেন খনন করতে এই প্রর্যন্ত ভেঙ্গে পড়েছে কয়েক ডর্জন বাড়ী প্রাচির।

ফুলবাড়ী পৌরসভাস্থ ক্ষিগ্রস্থ বাসিন্দারা অতিদ্রুত এই পরিস্থিতির প্রতিকার ও ক্ষতিপূরণ দাবি করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য