দিনাজপুর সংবাদাতাঃ পার্বতীপুর-সৈয়দপুর আন্তঃজাতিক বিমান বন্দর নামকরন ও ক্ষতিগ্রস্থ গ্রামবাসীরা মানববন্ধন ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাধ্যমে জেলা প্রশাসক বরাবরে একটি স্মারক লিপি প্রদান করে।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে পার্বতীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার কার্যালয়ের সামনে রং বেরং এর পোষ্টাল, ব্যানার, ফিষ্টুন নিয়ে উপজেলার বেলাইচন্ডী ইউনিয়নের ক্ষতিগ্রস্থ পরিবার নারী পুরুষসহ কয়েকশত লোকজন মানববন্ধন ও স্মারক লিপি দেয়।

জানাযায় সৈয়দপুর বিমানবন্দরের জন্য জমি পার্বতীপুর উপজেলার বেলাইচন্ডী ইউনিয়নের বানিয়াপাড়া, তাঁতিপাড়া, ভূজারীপাড়া, মুন্সিপাড়া ও বন্দর গ্রামের প্রায় ৩১৪.২৫ একর জমি অধিগ্রহনের সিদ্ধান্ত নেয় কর্তৃপক্ষ। প্রায় ২শতাধিক পরিবারের বশত ভিটা ৮.৮২ একর ও আবাদী জমি ৩০৫.৪৩ একর জমি গ্রামবাসিরা হারালে নিঃস হয়ে যাবে।

এ অঞ্চলের জমিতে তিন ফসলি জমিতে চাষাবাদ করে সারা দেশের মানুষের খাদ্য যোগান দিয়ে থাকে। অধিগ্রহন হলে ২শতাধিক পরিবারের পথ বন্ধ হয়ে যাবে। জমি অধিগ্রহনের ক্ষতিগ্রস্থদের উপযুক্ত পরিমান ক্ষতিপুরন পেলে জীবন যাপন স্বাভাবিক ও ভবিষ্যত প্রজন্মের নিরাপত্তা নিশ্চিত হবে।

ক্ষতিগ্রস্থ গ্রামের বর্তমান জমির বাজার মুল্য বসত ভিটা প্রতি শতক ৮ লক্ষ টাকা, আবাদি জমি প্রতি শতক ৫ লাখ টাকা। ক্ষতিগ্রস্থদের দাবি বসত ভিটার জন্য ২৪ লাখ এবং আবাদি ফসলি জমির জন্য ১৫ লাখ। মানব বন্ধনে বক্তরা জানান ২৩ হাজার টাকা করে প্রতি শতকে ক্ষতি গ্রস্থদের সরকার প্রদান করবে মর্মে অভিযোগ করেন।

এর পাশাপাশি সৈয়দপুর বিমান বন্দরের নাম পরিবর্তন করে পার্বতীপুর-সৈয়দপুর আন্তঃজাতিক বিমান বন্দরের আহবান জানান। স্মারক লিপি প্রদান কালে উপস্থিত ছিলেন ক্ষতিগ্রস্ত গ্রামের বাসিন্দা মজিবুর রহমান, আজিজার রহমান, হাজি মোজাম্মেল, আলম, মাহাবুর রহমান সংগ্রাম, শাহাজান আলী সাজু, ওজাইয়ের ও আবদুল হালিম প্রামানিক প্রমুখ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য