দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুর রেলওয়ে ষ্টেশন প্লাট ফর্ম এলাকা থেকে এসি বাথ, এসি কেবিন, এসি চেয়ার আন্তঃনগর ট্রেনের টিকেট সহ হাতেনাতে দুইজনকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছে সৈয়দপুর রেলওয়ে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ।

দিনাজপুর রেলওয়ে স্ষ্টেশন প্লাট ফরর্ম এলাকা থেকে টিকেট বিক্রির সময় সৈয়দপুর রেলওয়ে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ ২০টি ভিওআইপি টিকেটসহ হাতেনাতে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। দিনাজপুর থেকে ঢাকা গামী টিকেট নং ডিএমএস ০০০৪৬৫৩২ আসন সংখ্যা-১টি, ডিজিপি ০০৯৫৯৬০৯, আসন সংখ্যা-৪টি, ডিজিপি ০০৯৫৯৬০৮, আসন সংখ্যা-১টি, ডিজিপি ০০৯৫৯৬০৭, আসন সংখ্যা-২টি, ডিজিপি ০০৯৫৯৪৮৭, আসন সংখ্যা-১টি, ডিজিপি ০০৯৫৯৪৮৬, আসন সংখ্যা-১টি, ডিজিপ ০০৯৫৬৯৬১ আসন সংখ্যা-১টি, ডিজিপি ০০৯৫৯৪৭১ আসন সংখ্যা-১টি, ডিজিপি ০০৯৫৬৩৬৯, আসন সংখ্যা-২টি, ডিজিপি ০০৯৬০১৩০, আসন সংখ্যা-২টি, ডিজিপি ০০৯৬০১৩১, আসন সংখ্যা-১টি, ডিজিপি ০০৯৬০১২৮, আসন সংখ্যা-৩টি।

এ ব্যাপারে দিনাজপুর জিআরপি থানার ওসি মোঃ গোলজার হোসেন ঘটনার সততা নিশ্চিত করে বলেন, এই কালোবাজারী চক্র পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও, দিনাজপুর, চিরিরবন্দর, পার্বতীপুর, ফুলবাড়ী, বিরামপুর থেকে টিকেট সংগ্রহ করে ডবল, ৩ ডবল দামে প্রতিদিনই বিক্রয় করত। এমন খবরে দিনাজপুর জিআরপি থানা পুলিশ সৈয়দপুর রেলওয়ে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ মাঠে নামে।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দিনাজপুর রেলওয়ে ফ্লাট ফর্ম থেকে ঠাকুরগাঁও জেলার পীরগঞ্জ থানার জোগদা গ্রামের মৃত. ময়েজ উদ্দিনের পুত্র মোঃ আনিছুর রহমান (আনিস) (৫৮), লালমনিরহাট জেলার বান্দেরকুড়া গ্রামের মৃত. সুবের আলির পুত্র মোঃ খোরশেদ আলম (৬৩) কে আন্তঃনগর ট্রেনের ভিওআইপি ২০টি টিকেটসহ হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়।

এই চক্রের বাকীদেরকেও পর্যায়ক্রমে গ্রেফতার করা হবে বলে তিনি জানান। এ ব্যাপারে দিনাজপুর জিআরপি থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। যার মামলা নং- ০২, তাং-১০/৯/২০১৯।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য