ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে নিরাপত্তাবাহিনীর সদস্যরা পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন লস্কর-ই তৈয়বার সন্দেহভাজন এক সদস্যকে গুলি করে হত্যা করেছে।

নিহত ব্যক্তির বিরুদ্ধে কাশ্মীরের এক ফল ব্যবসায়ীর পরিবারের সদস্যদের ওপর হামলার অভিযোগ আছে বলে সেখানকার পুলিশপ্রধান জানিয়েছেন।

ভারতের পার্লামেন্ট গত মাসে জম্মু ও কাশ্মীরকে দেওয়া সংবিধানের বিশেষ মর্যাদা তুলে নেয়ার পর থেকে উপত্যকাটিতে তুমুল উত্তেজনা ও বিক্ষোভের খবর পাওয়া যাচ্ছে বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

এর মধ্যে গত সপ্তাহে জঙ্গিরা কাশ্মীরের প্রধান ফল উৎপাদক এলাকা সোপোরে এক ব্যবসায়ীরা বাড়িতে হামলা চালায়।

কাশ্মীরজুড়ে চলমান বয়কট আন্দোলনের মধ্যে ব্যবসা চালিয়ে যাওয়াই এ হামলার কারণ বলে ধারণা করা হচ্ছে।

জঙ্গিদের হামলায় ব্যবসায়ীর ছেলে, নাতনি ও পরিবারের অন্য এক সদস্য আহত হন বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছিল।

বুধবার পুলিশ সোপোরে লস্কর-ই তৈয়বার সন্দেহভাজন সদস্য আসিফকে গুলি করে হত্যা করেছে বলে জম্মু ও কাশ্মীরের রাজধানী শ্রীনগর থেকে রয়টার্সকে জানিয়েছেন রাজ্য পুলিশের প্রধান দিলবাঘ সিং।

পাকিস্তানভিত্তিক লস্কর-ই তৈয়বা কাশ্মীরে ভারতীয় শাসনব্যবস্থান বিরুদ্ধে লড়ছে।

শ্রীনগরের ৪৫ কিলোমিটার দূরে সোপোর থেকে আপেলবাহী শত শত ট্রাকের দেশের অন্যত্র পণ্য সরবরাহের উদ্দেশ্যে বেরিয়ে যাওয়ার ঘটনাকে স্বাভাবিকতার লক্ষণ বিবেচনা করে কর্তৃপক্ষ সাধুবাদ জানিয়েছে।

নিহত আসিফ গত সপ্তাহে ফল ব্যবসায়ীর বাড়িতে এবং এর আগে শ্রমিকদের ওপর হামলায় জড়িত ছিলেন বলে দিলবাঘ জানিয়েছেন।

ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের ঘটনায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে পাকিস্তান। নয়া দিল্লির এ সিদ্ধান্তের বদলা হিসেবে ‘সম্ভাব্য সর্বোচ্চ প্রতিক্রিয়া’ দেখানোরও হুমকি দিয়েছে তারা।

ভারত ও পাকিস্তান উভয়েই সমগ্র কাশ্মীরের মালিকানা দাবি করলেও দেশ দুটি অঞ্চলটির দুটি পৃথক অংশ নিয়ন্ত্রণ করছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য