দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুর চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি’র ৪৯তম বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

৭ সেপ্টেম্বর শনিবার দিনাজপুর শহরের বালুবাড়িস্থ গ্রীণভিউ কমিউনিটি সেন্টারে উক্ত সাধারণ সভায় চেম্বারের সভাপতি সুজা-উর-রব চৌধুরী এর সভাপতিত্বে স্বাগত বক্তব্য রাখেন চেম্বারের সিনিয়র সহ সভাপতি মো. মোসাদ্দেক হোসেন চৌধুরী পাপ্পু।

এছাড়াও চেম্বারের পরিচালক আজিজুল ইকবাল চৌধুরীর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মো. মাহমুদুল আলম, চেম্বারের সাবেক সভাপতি রফিকুল ইসলাম খান, রেজা হুমায়ুন ফারুক চৌধুরী শামীম, মো. মোসাদ্দেক হুসেন, সাবেক নির্বাহী সদস্য শামিম কবীর, মোহন পাটোয়ারী, আখতারুজ্জামান জুয়েল, সাধারণ সদস্য জহির শাহ্, মো. আখতারুজ্জামান মিঞা প্রমুখ। চেম্বারের সহ সভাপতি মানবেন্দ্র দাস মনোজ এর তত্ত্বাবধানে সভায় উপস্থিত ছিলেন ৪২ বিজিবি এর অধিনায়ক লে. কর্ণেল গাজী নাহিদুজ্জামান পিএসসি, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. কাজিম উদ্দিন প্রমুখ।

সভায় ২০১৯ সালের বার্ষিক প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন চেম্বারের সভাপতি সুজা-উর-রব চৌধুরী। এছাড়াও সভায় বার্ষিক আয়-ব্যয়ের হিসাব উপস্থাপন করেন চেম্বারের সিনিয়র সচিব প্রশান্ত কর্মকার শান্ত।

বার্ষিক প্রতিবেদনে প্রধানমন্ত্রীর আহবানে ব্যবসায়ী সম্মেলনে যোগদান, অর্থমন্ত্রী, এফবিসিসিআইএর সাথে মতবিনিময় সভায় দিনাজপুরের ব্যবসা-বাণিজ্য ও শিল্পায়নের স্বার্থে প্রাকৃতিক গ্যাস অথবা এলএনজি সরবরাহ করা, ব্যাংক ঋণের সুদের হার সিঙ্গেল ডিজিটে রাখার প্রস্তাব, মোহনপুর ব্রীজের টোল আদায় বন্ধ করার গৃহিত পদক্ষেপ, জেলার হিমাগারগুলোতে ৫০ কেজি ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন পাটের বস্তা ব্যবহার বাধ্যতামুলক, বেকারী শিল্পে সঠিত উৎপাদন রীতি, ইজিবাইক নিয়ে উদ্ভুদ সমস্যা নিরসনকল্পে পরিকল্পনা, চামড়ার ন্যায্য মুল্য নিশ্চিত করণে গৃহিত পদক্ষেপসহ বিভিন্ন কার্যক্রম তুলে ধরা হয়েছে বলে চেম্বারের সভাপতি জানান।

বার্ষিক সাধারণ সভাশেষে দুপুরের খাবারের বিরতির পর চেম্বারের অতিরিক্ত সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য