দিনাজপুর সংবাদাতাঃ বিরলে ঘোড়া জবাই করে মাংস বিক্রির ঘটনায় কসাই ও ঘোড়া মালিকের ভ্রাম্যমান আদালতে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদ- হয়েছে। এছাড়াও ঘোড়ার মালিকের ছোট ভাই কলেজ ছাত্র রায়হান কে অর্থ দন্ড প্রদান করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

গতকাল  উপজেলার রাণীপুকুর ইউপি’র কাজীপাড়া উচ্চবিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ঘোড়ার কসাই শফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে ঘোড়া জবাই করে মাংস বিক্রির সময় এলাকাবাসীর সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট এ বি এম রওশন কবীর ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন।

বিরলে ঘোড়ার মাংস বিক্রির ঘটনায় কসাই ও মালিকের কারাদন্ড -Dinajpur, Dinajpurnews, Dinajpur news, দিনাজপুর, দিনাজপুরনিউজ, দিনাজপুর নিউজ বাংলা, বাংলানিউজ bangle, banglanews, Bangladesh, বাংলাদেশ I+বিরল থানার কর্মকর্তা ইনচার্জ এ টি এম গোলাম রসুল এর নির্দেশনায় থানার এ এস আই মাসুদ রানা ও এ এস আই আনোয়ার এর নেতৃত্বে সঙ্গীয় পুলিশ ফোর্স একজনকে আটক করে। সন্ধ্যায় পূণরায় অভিযান চালিয়ে কাজীপাড়া গ্রামের আলহাজ্জ মকবুল হোসেন মোল্লার পুত্র কাজীপাড়া উচ্চবিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ঘোড়ার কসাই শফিকুল ইসলাম ও আবদুল গণির পুত্র ঘোড়ার মালিক কাইয়ুম আলীকে আটক করে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়। ঘটনাটি এলাকায় টক অব দ্যা টাউনে পরিনত হয়।

রাতেই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট এ বি এম রওশন কবীর ঘোড়ার কসাই শফিকুল ইসলাম ও ঘোড়ার মালিক কাইয়ুম আলীকে ৬ মাস করে বিনাশ্রম কারাদ- ও ঘোড়ার মালিকের ভাই রায়হানকে ২৫ হাজার টাকা অর্থদন্ড অনাদায়ে ১ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ডের আদেশ প্রদান করেন।

বিরল থানা পুলিশ রাতেই দন্ডপ্রাপ্ত ঘোড়ার কসাই শফিকুল ইসলাম ও ঘোড়ার মালিক কাইয়ুম আলীকে জেলা কারাগারে প্রেরণ করে এবং রায়হান অর্থদন্ডের টাকা পরিশোধ করলে মুক্তি পায়। শেষে উদ্ধারকৃত ঘোড়ার মাংসসমূহ উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ মাহফুজা খাতুন এর মাধ্যমে ধ্বংস করা হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য