দিনাজপুর সংবাদাতাঃ রংপুর রিজিয়ন আন্তঃ ব্যাটালিয়ন কাবাডি প্রতিযোগিতা ২০১৯ সম্পন্ন হয়েছে।

২৯ আগস্ট দিনাজপুর বিজিবি সদর সেক্টর মাঠে ৪২ বিজিবি আয়োজিত রংপুর রিজিয়ন আন্তঃ ব্যাটালিয়ন কাবাডি প্রতিযোগিতায় রংপুর রিজিয়নের অধিনস্থ ১৫টি ব্যাটালিয়ন অংশ নেয়।

চূড়ান্ত খেলায় ৪২ বিজিবি ৩২ পয়েন্ট পেয়ে চ্যাম্পিয়ন এবং ২৯ বিজিবি ২৯ পয়েন্ট পেয়ে রানারআপ হওয়ার গৌরব অর্জন করে।

এছাড়াও পতিœতলা ব্যাটালিয়ন (১৪ বিজিবি) তৃতীয় স্থান অর্জন করে। খেলা শেষে বিজয়ী এবং বিজিতদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন প্রধান অতিথি দিনাজপুর বিজিবি’র সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল মোঃ সোহরাব হোসেন ভূইঁয়া, পিএসসি, জি+।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ৪২ বিজিবি’র অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল গাজী নাহিদুজ্জামান পিএসসি, ২৯ বিজিবি ফুলবাড়ীর অধিনায়ক, সেক্টর সদর দপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক (অপারেশন) মেজর মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ ভূঁইয়া, মেজর এম আবু তাহের, মেডিকেল অফিসার ফুলবাড়ী ব্যাটালিয়ন ২৯ বিজিবিসহ অন্যান্য কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণ।

খেলায় শ্রেষ্ঠ প্রবীন খেলোয়াড় হিসেবে নির্বাচিত হন মোঃ মিঠু হাসান এবং শ্রেষ্ঠ নবীন খেলোয়াড় হিসেবে নিবাচিত হন সৈয়দ আজম আলী। খেলায় রেফারী ছিলেন মোঃ রাইদুল ইসলাম, আঃ সামাদ ও তারা মিয়া।
দিনাজপুরে ৪২ বিজিবি’র ব্যবস্থাপনায় কাবাডি প্রতিযোগিতা সম্পন্ন
মোঃ ইউসুফ আলী ॥ রংপুর রিজিয়ন আন্তঃ ব্যাটালিয়ন কাবাডি প্রতিযোগিতা ২০১৯ সম্পন্ন হয়েছে।

২৯ আগস্ট দিনাজপুর বিজিবি সদর সেক্টর মাঠে ৪২ বিজিবি আয়োজিত রংপুর রিজিয়ন আন্তঃ ব্যাটালিয়ন কাবাডি প্রতিযোগিতায় রংপুর রিজিয়নের অধিনস্থ ১৫টি ব্যাটালিয়ন অংশ নেয়।

চূড়ান্ত খেলায় ৪২ বিজিবি ৩২ পয়েন্ট পেয়ে চ্যাম্পিয়ন এবং ২৯ বিজিবি ২৯ পয়েন্ট পেয়ে রানারআপ হওয়ার গৌরব অর্জন করে।

এছাড়াও পতিœতলা ব্যাটালিয়ন (১৪ বিজিবি) তৃতীয় স্থান অর্জন করে। খেলা শেষে বিজয়ী এবং বিজিতদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন প্রধান অতিথি দিনাজপুর বিজিবি’র সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল মোঃ সোহরাব হোসেন ভূইঁয়া, পিএসসি, জি+।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ৪২ বিজিবি’র অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল গাজী নাহিদুজ্জামান পিএসসি, ২৯ বিজিবি ফুলবাড়ীর অধিনায়ক, সেক্টর সদর দপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক (অপারেশন) মেজর মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ ভূঁইয়া, মেজর এম আবু তাহের, মেডিকেল অফিসার ফুলবাড়ী ব্যাটালিয়ন ২৯ বিজিবিসহ অন্যান্য কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণ।

খেলায় শ্রেষ্ঠ প্রবীন খেলোয়াড় হিসেবে নির্বাচিত হন মোঃ মিঠু হাসান এবং শ্রেষ্ঠ নবীন খেলোয়াড় হিসেবে নিবাচিত হন সৈয়দ আজম আলী। খেলায় রেফারী ছিলেন মোঃ রাইদুল ইসলাম, আঃ সামাদ ও তারা মিয়া।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য