দিনাজপুর সংবাদাতাঃ এলাকার মানুষের দীর্ঘদিনের দাবী বীরগঞ্জ ঢেপা নদীর স্লুইস গেটের দক্ষিন পুর্ব পাশে স্লুইস গেটের সুরক্ষা প্রাচিরের শেষ মাথায় ২৫/৩০ ফিট লম্বা জায়গায় নিম্নমানের কাজের সংস্কারের॥ কিন্তু আজও সংস্কার হয়নি।

গত কয়েক দিনের বূষ্টির পানি নদীতে পড়ার সময় বোল্ডারের নিচের বালু সরে যাওয়ায় ধীরে ধীরে ভাংগনের সূষ্ঠি হয়। এলাকা বাসির দাবি এখনই সংস্কা র না হলে ৮০টি বাড়ি ও ১টি মহিলা মাদরাসা নদী গর্ভে বিলিন হয়ে যাবে। বর্তমানে ৮০টি বাড়ির বাসিন্দা ও ১টি মহিলা মাদরাসার ছাত্রী সহ শত শত লোকের চলাচলের কঠিন সমস্যা হচ্ছে। স্লুইস গেটের সুরক্ষা প্রাচিরই হচ্ছে এ অঞ্চলের লক্ষাধিক মানুষের চলাচলের একমাত্র রাস্তা। আর কয়েক ফিট ভাংলেই স্লুইস গেট হুমকির মুখে পড়ে যাবে।

বাসা বাড়ী নদী গর্ভে চলে যাওয়ার আতঙ্কে দিশেহারা, মো: বেলাল হোসেন,সফিকুল ইসলাম,মোসলেম উদ্দিন,শুকুর আলী,রশিদ মিঞা,হাফিজ উদ্দিন,রফিকুল ইসলাম এবং মো: ফিরোজ শাহ জানান, আমরা আগে বীরগঞ্জ উপজেলার সুজালপুর ইউনিয়নের বাসিন্দা ছিলাম। পৌরসভা হওয়ার পর, এখন আমরা না পৌরসভার, না ইউনিয়নের।

কেউ আমাদের দায়িত্ব নিতে চায়না। পানি উন্নয়ন বোডের স্থানীয় অফিসে যোগাযোগ করলে মতিয়ার নামের একজন তত্তাবধায়ককে পাওয়া যায়, তিনি বলেন আমার কিছু করার নেই, আপনারা দিনাজপুর যোগাযোগ করেন। মোবাইলে দিনাজপুর যোগাযোগ করলে সাইফুল ইসলাম নামের একজন লোক এস ও পরিচয় দিয়ে বলেন, এগুলো সরকারী কাজ, প্রস্তাব পাঠাতে হবে, প্রস্তাব পাশ হয়ে আসবে তারপর টেন্ডার হবে, দুই/তিন মাসের আগে কাজ হবেনা। আপনারা দিনাজপুর আসেন স্যারদের সাথে কথা বলেন।

এলাকা বাসি এম পি সাহেব সহ ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করে, আশু পদক্ষেপ কামনা করছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য