ফের চুমু রাহুল গান্ধীর গালে। এর আগে গুজরাট ও পশ্চিমবঙ্গে এ ঘটনা ঘটে। এবার তার নির্বাচনী কেন্দ্র কেরেলার ওয়েনাডে নিরাপত্তার বলয় ভেঙে এক যুবক তাকে চুমু দেন।

রাহুল গান্ধী বন্যা কবলিত কেরেলা সফর করছেন। সেখানে তিনি দুর্ভোগে ভোগা মানুষের কথা শুনছেন। বুধবার গিয়েছিলেন তার নির্বাচনী কেন্দ্র কেরেলার ওয়েনাডে। সেখানে মানুষকে শুভেচ্ছা জানানোর সময়ে ভিড়ের মধ্যে নিরাপত্তার বলয় ভেঙে এগিয়ে যান নীল জামা পরা এক যুবক। তিনি গাড়ির বাইরে থেকেই রাহুলের সঙ্গে হাত মেলান। এক পর্যায়ে কাঁধে হাত রেখে তাকে জড়িয়ে ধরেন। আর তার পরে আচমকা চুমু দেন গালে। অবিচলিত রাহুলও হাসি মুখে হাত নেড়ে শুভেচ্ছা জানাতে থাকেন আগের মতোই। নিরাপত্তা রক্ষীরা অবশ্য তাকে সরিয়ে দেন।

প্রথমে পুলিশ তার পরিচয় প্রকাশ করেনি। পরে জানা যায় ওই যুবকের নাম ইব্রাহিম চেমবিলট। তিনি পেশায় কৃষক। ওয়েনাডেই থাকেন। পানিতে ডুবেছে তার জমি।

তবে প্রশ্ন ওঠেছে রাহুলের নিরাপত্তা নিয়ে। দেশের সর্বোচ্চ এসপিজি নিরাপত্তা পান যিনি, তাকে জড়িয়ে ধরে চলে যাচ্ছে অজ্ঞাতপরিচয় কোন ব্যক্তি—এটা কি বিপজ্জনক নয়? ইব্রাহিম আবেগ তাড়িত হয়ে ওই কাণ্ড করেছেন। রাহুলের অনুরোধে পুলিশ ইব্রাহিমের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়নি।

শুধু এবারই যে এ ঘটনা তা নয়। ২০১৪ সালে ভ্যালেন্টাইনস ডে-তে গুজরাটের বলসাড়ে দলীয় সভামঞ্চে এক নারী চুমু দিয়েছিলেন রাহুলকে। এর দুমাস পরে পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদে চুমু কাণ্ড। সেখানে সভামঞ্চের পাশে এক যুবক তাকে আলিঙ্গন ও গালে চুমু দেন।-সূত্র আনন্দবাজার

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য