দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুরের সেতাবগঞ্জ চিনিকলের দূর্গাপুর ফার্মের মূল্যবান ৩টি আকাশমুনি গাছ কেটে ট্র্যাক্টরে করে পাচার করার সময় স্থানীয় জনতা কাটা গাছগুলো আটক করেন।

এলাকাবাসী সুত্রে জানা গেছে, ২৭ আগষ্ট মঙ্গলবার সকালে সেতাবগঞ্জ চিনিকলের আওতাধীন দূর্গাপুর ফার্মে উক্ত ফার্মের সিডিএ বজলুর রশীদ বুজুর নেতৃত্বে মূল্যবান ৩টি আকাশমুনি গাছ কাঁটা হয় গাছগুলো কাঁটার পর তা ট্র্যাক্টরে করে পাচার করার সময় দুপুরে চন্ডিপুর মন্দিরের সমানে স্থানীয় জনতা গাছগুলো আটক করলে ট্যাক্টর থেকে গাছ গুলো মন্দিরের মাঠে নামানো হয়।

পরে মিল কর্তৃপক্ষকে খবর দিলে উদ্ধার হওয়া গাছগুলো মিলের কেয়ার টেকারের তত্বাবধানে রাখা হয়েছে।

এব্যাপারে সেতাবগঞ্জ চিনিকলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আব্দুল লতিফের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে তিনি সাংবাদিকদের জানান, দুর্গাপুর ফার্মের ২টি মরা গাছ কাঁটার জন্য সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক একটি কমিটি গঠন করেন কিন্তুু সিডিএ বজলুর রশীদ কাউকে কিছু না জানিয়ে মরা গাছের সাথে ৩টি ভালগাছ কেটে নিয়ে বিক্রির জন্য জন্য নিয়ে যাচ্ছিলেন আমরা খবর পেয়ে গাছগুলো আটক করি।

বর্তমানে গাছগুলো আমাদের তত্বাবধানে রয়েছে। এব্যাপারে সিডিএ বজলুর রশীদ বজুর বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানান। এব্যাপারে মিলের মহা-ব্যবস্থাপক (ফার্ম) এখলাছুর রহমানের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে তিনি মোবাইল ফোন ধরেন নি।

চিনিকলের শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি প্রশান্ত চৌহান জানান, বিধি বহিভর্’তভাবে কেউ গাছ কাটলে তার বিরুদ্ধে প্রশাসন অবশ্যই ব্যবস্থা নিবেন। এদিকে সিডিএ বজলুর রশীদ বজুর বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময়ে ফার্মের গাছ কাটা সহ অনিয়ম ও দূর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। যার সঠিক তদন্ত করা হলে থলের বিড়াল বেড়িয়ে আসবে।

তবে সেতাবগঞ্জ চিনিকলের ইতিপুর্বে গাছ কাটার একাধিক অভিযোগে অভিযুক্ত ব্যক্তিদের ব্যাপারে তেমন কোন ব্যবস্থা গ্রহন না করায় এই ঘটনাটিও যেন ধামাচাপা না পড়ে সেদিকে নজন রাখতে মিলের প্রশাসনের প্রতি আহবান জানান এলাকাবাসী।

ছবির ক্যাপশনঃ সেতাবগঞ্জ চিনিকলের আওতাধীন দুর্গাপুর ফার্মের সিডিএ বজলুর রশিদ বজু কর্তৃক মুল্যবান ৩টি গাছ কেটে পাচার করার সময় উদ্ধার করে স্থাণীয় জনতা। ছবিতে উদ্ধার হওয়া গাছ গুলো দেখা যাচ্ছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য