কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার হাসনাবাদ ইউনিয়নের চন্ডিপুর এলাকায় দুটি মোটরসাইকেলের মুখোমুখী সংঘর্ষে ইউপি সদস্যসহ দুইজন ননিহত হয়েছে। এরা হলেন উলিপুর উপজেলার মধূপুর সরকার পাড়া গ্রামের শামসুল হকের ছেলে ইউপি সদস্য জাহিদুল ইসলাম (৩৫) ও কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার ভোগডাঙ্গা ইউনিয়নের মধ্যকুমরপুর গ্রামের আবদুস ছামাদের ছেলে আলমগীর হোসেন (৩৫)।

এ ঘটনায় আহত হয়েছেন দুজন। এরমধ্যে গুরুতর আহত বুলবুলকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা ড. শাহীনুর রহমান সরদার জানান, দুপুর আড়াইটার দিকে গুরুতর আহত চারজনকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। এদের মধ্যে জাহিদুল ইসলাম ও আলমগীরকে মৃত: অবস্থায় পাওয়া যায়। আহত বুলবুলকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুরে রেফার্ড করা হয়েছে। আহত অপর মোটর সাইকেল আরোহী ইউসুফ চিকিৎসাধীন রয়েছে।

নাগেশghরী থানার কর্মকর্তা ইনচার্জ রওশন কবীর জানান, দুপুর পৌনে দুইটার দিকে কুড়িগ্রাম নাগেশ^রী মহাসড়কের চন্ডিপুর এলাকার মনদের তেপতীতে মুখোমুখী সংঘর্ষ ঘটে। এ সময় উলিপুর উপজেলার মধূপুর সরকার পাড়া গ্রামের শামসুল হকের পূত্র জাহিদুল ইসলাম মেম্বার ও সদর উপজেলার ভোগডাঙ্গা ইউনিয়নের মধ্যকুমরপুর গ্রামের আবদুস ছামাদের পূত্র আলমগীর ঘটনাস্থলেই মারা যায়।

এ সময় আলমগীরের সাথে থাকা একই এলাকার আব্বাস আলীর পূত্র বুলবুল (৩০) ও মৃত: আকবর আলীর পূত্র ইউসুফ আলী (২৮) আহত হন। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে দ্রুত কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য