সিরিয়া সীমান্তের কাছে লেবাননের একটি শহরে ফিলিস্তিনি একটি দলের সামরিক অবস্থানে বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল।

সোমবার ভোররাতে হামলাটি চালানো হয় বলে লেবাননের একটি নিরাপত্তা সূত্র ও দেশটির আন-নাহার নিউজ জানিয়েছে বলে খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের।

ওই সামরিক অবস্থানটি পপুলার ফ্রন্ট ফর দ্য লিবারেশন অব ফিলিস্তিন-জেনারেল কমান্ডের (পিএফএলপি-জিসি) বলে জানিয়েছে ওই নিরাপত্তা সূত্র ও সংবাদপত্রটি। হামলায় কেউ হতাহত হয়নি বলে জানিয়েছে তারা।

এর একদিন আগে লেবাননের রাজধানী বৈরুতের দক্ষিণাংশে হেজবুল্লাহ নিয়ন্ত্রিত এলাকায় দুটি ড্রোন বিধ্বস্ত হয়। ড্রোন দুটি মধ্যে একটি বিস্ফোরিত হয়। বিধ্বস্ত ড্রোন দুটি ইসরায়েলের বলে লেবাননের সেনাবাহিনী ও হেজবুল্লাহ গোষ্ঠী জানিয়েছে।

লেবাননের কুসায়া শহরে অবস্থিত ওই ফিলিস্তিনি অবস্থানের কর্মকর্তা আবু মুহাম্মদ জানিয়েছেন, তাদের অবস্থানে তিনটি রকেট আঘাত হেনেছে, এতে শুধু বস্তুগত ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

আন-নাহারকে তিনি বলেছেন, “এমকে বিমানগুলো (ড্রোন) তিনটি রকেট দিয়ে আমাদের একটি অবস্থানে হামলা চালিয়েছে। এতে কেউ হতাহত হয়নি, শুধু বস্তুগত ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।”

ফিলিস্তিনি ওই অবস্থান থেকে বিমান বিধ্বংসী গোলা ছোড়া হয়েছে বলে আন-নাহার জানিয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে ইসরায়েলি সামরিক বাহিনীর এক মুখপাত্র বলেন, “বিদেশি প্রতিবেদনের ওপর মন্তব্য করি না আমরা।”

এ বিষয়ে মন্তব্যের জন্য তাৎক্ষণিকভাবে লেবাননের সেনাবাহিনীর কাউকে পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য