দিনাজপুর সংবাদাতাঃ স্কুল ফাঁকি দিয়ে সহপাঠিদের সাথে শাখা যমুনা নদীতে গোসল করতে নেমে দিনাজপুরের বিরামপুরে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্র নিখোঁজ হয়। এর ৪ ঘণ্টা পর বেলা সাড়ে ৩টায় ওই ছাত্রের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

বুধবার সকাল ১১টার দিকে বিরামপুর শাখা যমুনা নদীর কৃষ্টচাঁদপুর ঘাটে সহপাঠিদের নিয়ে গোসলে নামলে এই ঘটনা ঘটে।

রংপুর থেকে ডুবুরি দল এসে সেখানে ৩ ঘণ্টা উদ্ধার অভিযান চালিয়ে ওই স্কুলছাত্রের লাশ উদ্ধার করে। বিরামপুর ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশন ইনচার্জ আইয়ুব আলী লাশ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

সিয়াম হোসেন (১৪) বিরামপুর শহরের পূর্বজগন্নাথাপুর সাহেবপাড়া মহল্লার সুমন হোসেন এর ছেলে এবং বিরামপুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র।

সিয়ামের বন্ধুরা জানান, বুধবার এগারোটাই শাখা যমুনা নদীর কৃষ্টচাঁদপুর ঘাটে কয়েক সহপাঠী মিলে গোসল করতে নামে। এসময় সাঁতার না জানা সিয়াম ডুবে যেতে থাকলে অন্য বন্ধুরা তাকে টেনে তোলার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। এক পর্যায়ে সিয়াম নদীর পানিতে তলিয়ে যায়।

বিরামপুর ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশন ইনচার্জ আইয়ুব আলী বলেন, খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস দল ঘটনাস্থলে এসে উদ্ধার অভিযান চালিয়ে কোন হদিস না পাওয়ায় রংপুর থেকে ডুবুরি দল এনে উদ্ধার কাজ চালানো হয়।

তিনি জানান, বেলা সাড়ে তিনটার দিকে ঘটনাস্থলের পাশ্বেই নদীর গভীরে বাঁশের খুটির সঙ্গে আটকানো অবস্থায় ওই ছাত্রের লাশ উদ্ধার করা হয়। পরে, স্থানীয় প্রসাশনের মাধ্যমে লাশটি তার বাবার কাছে হস্তান্তর করা হয়।

বিরামপুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আরমান হোসেন জানান, ছাত্র সিয়াম বুধবার স্কুলে আসেনি। তার পানিতে ডুবে যাওয়ার খবর পেয়ে স্কুলের অন্যান্য শিক্ষকসহ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়েছি। নিহত ছাত্রের বিষয়ে আমরা গভীরভাবে শোকাহত।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য