দিনাজপুর সংবাদাতাঃ ঈদ-উল আযহার নামাজ ১২ আগস্ট ঈদের দিন সকাল সাড়ে ৮টায় অনুষ্ঠিত হবে বলে জেলা প্রশাসন ও দিনাজপুর পৌরসভার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

দিনাজপুরে ৫ম বারের মতো নান্দনিক ও সৌন্দর্য মন্ডিত বাংলাদেশের বৃহৎ দিনাজপুরের ঈদগাহ ঐতিহাসিকবড় ময়দানে ঈদের জামাত শান্তিপূর্নভাবে আদায়ে সব রকম প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে।

ঐতিহাসিক বড় ময়দানে উপমহাদেশের বৃহৎ ঈদগাহ মাঠে প্রধান ঈদের জামাতে লাখ লাখ মুসল্লিরা নির্বিঘ্নে নামাজ আদায়ে নেয়া হয়েছে সর্বাত্মক নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

নেয়া হয়েছে কয়েক স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা। পুলিশের পাশাপাশি মোতায়েন থাকবে র‌্যাব ও আনসার বাহিনী।

ঈদগাহের মাঝে থাকবে ওয়াচ টাওয়ার। প্রবেশের পূর্বে মুসল্লিদের আনা যানবাহন রাখার জন্য তিনটি পয়েন্টে চেকিংএর ব্যবস্থা থাকবে। মাঠের চারপাশে ৬টি পথে প্রবেশের সময় মেটাল ডিটেক্টরে তল্লাশির পর জামাতে প্রবেশ করানো হবে মুসল্লিদের।

এ ছাড়া মাঠে প্রবেশের বিভিন্ন পথে টহল পুলিশ ছাড়াও সাদা পোষাকেও নিরাপত্তায় দায়িত্বে থাকবে। পুলিশ ছাড়াও র‌্যাবসহ অন্যান্য গোয়েন্দা সংস্থার কর্মীরাও নিরাপত্তায় সক্রিয় থাকবে। মাঠের পুরোটা সিসি ক্যামেরার আওয়াতায় আনা হয়েছে।

এদিকে, নিজ নিজ জায়নামাজসহ ঈদ-জামাতে অংশ নেয়ার জন্য দিনাজপুরসহ বিভিন্ন জেলার সকল ধর্মপ্রাণ মুসল্লীদের আহবান জানানো হয়েছে। নিরাপত্তার স্বার্থে জায়নামাজ ব্যতীত অন্য কোনও ধরণের সামগ্রী বহন না করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।

মুসল্লীদের সুবিধায় মাঠের বিভিন্ন স্থানে ওযু করার জন্য ব্যবস্থা রয়েছে। এছাড়াও যানবাহন রাখার জন্য ঈদগাহ মাঠ সংলগ্ন ভিন্ন ভিন্ন পাঁচটি স্থানে গ্যারেজের ব্যবস্থা আছে।

ঈদ জামাতে ইমামতি করবেন দিনাজপুরের জেনারেল হাসপাতাল জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা শামসুল হক কাসেমি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য