আবু তাহের আনসারী পঞ্চগড়ঃ পঞ্চগড়ে দালাল চক্রের খপ্পরে পড়ে হজ্জে যাওয়া হল না পঞ্চগড়ের ৩৭ জন হজ্জে যাত্রীর। হজ্জে পাঠানোর কথা বলে দালাল ও এজেন্সির প্রতারনার ফাঁদে পড়ে শেষ পর্যন্ত যাওয়া হল না তাদের।

এদিকে কোন উপায় না পেয়ে অর্থ উদ্ধার ও প্রতারক চক্রের বিচারের দাবিতে জেলা প্রশানসক বরাবরে অভিযোগ দাখিল করেছে ভুক্তভোগিরা।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায় ,পঞ্চগড়ের সান ফ্লাওয়ার এয়ার লিংকার্স হজ্জ লাইসেন্স নং ২৭১ ও এটিএম ট্রাভেল্স এন্ড টুরস লিঃ হজ্জ লাইসেন্স নং ৩০৮ এর প্রোপাইটার এর সত্বাধীকারী সদর উপজেলার টুনিরহাট এলাকার মোঃ ওয়াসেক আলী হজ্জে যাওয়ার নাম করে ৩৭ জনের কাছ থেকে টাকা নেয়। প্রতি জনের কাছ থেকে ২লাখ থেকে ৪ লাখ টাকা পর্যন্ত টাকা নেয়।

৫ উপজেলার বিভিন্ন এলাকার মোট ৩৭ জনকে ২০১৯ সালে হজ্জে পাঠানোর কথা বলে টাকা হাতিয়ে নেয়। সকলের জন্য প্রাক নিবস্ধন ও করে। হজ্জে যাওয়ার যখন সময় ঘনিয়ে আসতে শুরু করেছে তখন আজ না কাল সময় ক্ষেপন শুরু করে।

আজ কাল করতে করতে সকল হাজীদের যাওয়া শেষ হয়ে গেলে মোবাইল ফোনেও তার সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হচ্ছে না। পরবর্তীতে পঞ্চগড় সদর উপজেলার কামাত কাজলদিঘী ইউনিয়নের টুনিরহাট এলাকার ওয়াছেদ আলী ২০১৯ সালে হজ্জে যাওয়া হবে না মর্মে জানিয়ে দেয়।

সমুদয় টাকা আত্মসাৎ করেছে বলে কোন এজেন্সিতে কোন টাকা জমা দেওয়া হয় নাই বলে খোজ নিয়ে দেখা যায়। এ দিকে কোন উপায় অন্তর না পেয়ে অবশেষে পাসপোর্ট ও দেওয়া সমুদয় টাকা ফেরৎ পাওয়ার আশায় জেলা প্রশাসক বরাবরে একটি অভিযোগ পত্র দাখিল করে ভুক্ত ভোগীরা। পরবর্তীতে পাসপোর্ট ও টাকা ফেরতের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থার আশ^াস দেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য