দিনাজপুর সংবাদাতাঃ জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ফজরের নামাজের সময় কতিপয় বিপদগামী সৈনিক নিষ্ঠুর ও নির্মমভাবে হত্যা করছিলো জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারকে। হত্যার বিচারও বন্ধ করে দেয়া হয়েছিল। কোরআন ও হাদিসের কোন স্থানে আছে হত্যা করে ইসলাম প্রতিষ্ঠা করা।
তিনি বলেন, তথ্য প্রযুক্তির এই যুগে মোবাইলের মধ্যে কোরআন শরিফের আয়াত পাওয়া যাচ্ছে। এটাই হল শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ।

তিনি প্রতিটি মসজিদে দেশ ও জাতির অগ্রগতি এবং কল্যানের জন্য খুৎবা দেয়ার আহবান জানিয়ে বলেন, কোরআন হাদিসের আলোকে হত্যা, অগ্নি সংযোগ, মাদকের বিরুদ্ধে মুসল্লিদের বোঝাতে হবে। বর্তমান ডেঙ্গু রোগের দুর্যোককে কাটিয়ে উঠতে জনগনকে সচেতন করতে ইমামদেরও দায়িত্ব রয়েছে। আলোচনা সভায় হুইপ দিনাজপুর বড় ময়দানে সকল ইমাম আলেমদের এশিয়া সর্ববৃহৎ ঈদগাহ মাঠে পবিত্র ঈদ-উল আযহার নামাজ আদায় করার আহবান জানান।

গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি দিনাজপুর বন্ধন কমিউনিটি সেন্টারে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ ১৫ আগস্ট তার পরিবারের সকল শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে জেলা প্রশাসন ও ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ইমাম ও আলেমদের সাথে আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন।
আলোচনা শেষে দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনা করে দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

জেলা প্রশাসক মোঃ মাহমুদুল আলমের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন ইসলামীক ফাউন্ডেশন দিনাজপুর কার্যালয়ের উপ পরিচালক মোঃ রাজিউর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কাজেম উদ্দীন, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ ইমদাদ সরকার, শহর আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক বিশ্বজিৎ ঘোষ কাঞ্জন, ছানাপীর জামে মসজিদের খতিব মাওঃ মোঃ মতিউর রহমান কাসেমী, গোর এ শহীদ বড় ময়দানের ইমাম, আলহাজ¦ শামসুল হক কাসেমী, জেলা ইমাম ওলামা সমিতির সাধারন সম্পাদক রফিকুল্লাহ মাজাহারি প্রমুখ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য