ভারতের উত্তর প্রদেশের বারাণসীতে তীর্থ করতে গিয়ে এবার যৌন নিগ্রহের শিকার হলেন ৩২ বছর বয়সী এক জার্মান নারী। বারাণসীর এক ধর্মশালায় উঠেছিলেন ওই জার্মান নারী। তার অভিযোগ, ওই ধর্মশালায় তিন জন তার শ্লীলতাহানি করেছে। অভিযুক্তদের মধ্যে দুই ‘সাধু বাবাও’ রয়েছে।

হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে বলা হয়েছে, ওই নারীর অভিযোগের ভিত্তিতে একটি মামলা দায়ের করে তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

ইতিমধ্যেই এক অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, মঙ্গলবার সকালে এক গুরুভাইকে সঙ্গে নিয়ে বারাণসীর শিবপুর থানায় এসে যৌন নিগ্রহের অভিযোগ দায়ের করেন সাধ্বী (জার্মান নারী)। অভিযোগ, বিনা অনুমতিতে ঘরে ঢুকে অসভ্যের মতো শরীরের বিভিন্ন জায়গায় স্পর্শ করে অভিযুক্তরা।

বারাণসীর এএসপি অনিল কুমার জানান, ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৫৪ ধারায় ( যৌননিগ্রহ বা খারাপ উদ্দেশ্যে মহিলার উপর জোর খাটানো) ওই তিন জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

তিনি আরো জানান, একজনকে গ্রেফতার করা গেলেও, বাকি দু’জন ধর্মশালা ছেড়ে পালিয়েছে। শিগগির তাদেরও গ্রেফতার করা হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য