আজিজুল ইসলাম বারী, লালমনিরহাটঃ লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলায় বাল্য বিয়ে দেয়ার চেষ্টার অপরাধে কনের মা ও বড় ভাইয়ের ১ বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সোমবার (২৯ জুলাই) সকালে তাদের আদালতের মাধ্যমে লালমনিরহাট কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

এর আগে রোববার (২৮ জুলাই) দিবগত রাতে ওই উপজেলার ধবলসতী কাইতার বাড়ি এলাকায় এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আব্দুল করিম ছাত্তার।

কারাদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন-কনের মা মঞ্জু বেগম (৪০) ও বড় ভাই রতন ইসলাম (২১)।

পাটগ্রামের থানার ওসি মনসুর আলী সরকার জানান, ওই এলাকার রফিকুল ইসলামের মেয়ে ও ধবলসতী আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী রিতা মনি (১০) সাথে পার্শ্ববর্তী মির্জারকোর্ট এলাকার মতিয়ার রহমানের পুত্র খলিলুর রহমান খালিলের বাল্য বিয়ের প্রস্তুতি চলছিল। খবর পেয়ে পাটগ্রাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আব্দুল করিম ছাত্তার বিয়ে বাড়িতে উপস্থিত হয়।

এ সময় বর খলিলুর রহমান খালিল ও তার লোকজন পালিয়ে যায়। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ইউএনও আব্দুল করিম ছাত্তার বাল্য বিয়ে দেয়ার চেষ্টার অপরাধে কনের মা মঞ্জু বেগম (৪০) ও বড় ভাই রতন ইসলামকে (২১) ১ বছর করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন। সোমবার সকালে তাদের আদালতের মাধ্যমে লালমনিরহাট কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

পাটগ্রাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আব্দুল করিম ছাত্তার এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য