রাশিয়ার বিরোধীদলীয় নেতা অ্যালেক্সি নাভালনিকে বিষ প্রয়োগ করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন তার চিকিৎসক আনাস্তাসি ভাসিলিয়েভা। সাম্প্রতিক বিক্ষোভের কারণে নাভালনিকে ৩০ দিনের জেল দেয়া হয়েছে। কিন্তু মারাত্মকভাবে মুখ ফুলে যাওয়ায় এবং ত্বক লাল হয়ে ওঠার পর তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়।

এক্ষেত্রে রাষ্ট্র বলছে, জেলে থাকা অবস্থায় মারাত্মক এলার্জি সংক্রমিত হয়েছেন নাভালনি। কিন্তু রাষ্ট্রপক্ষের এ দাবি নোকচ করে তার চিকিৎসক ভাসিলিয়েভা বলছেন, “তার কোনো এলার্জি নেই, কখনো ছিলও না।”

স্থানীয় নির্বাচন থেকে বিরোধীদলীয় প্রার্থীদের বাইরে রাখার প্রতিবাদে বিক্ষোভ আহ্বান করার কারণে অ্যালেক্সি নাভালনিকে গ্রেফতার করে ৩০ দিনের জেল দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। শনিবার মস্কোর ওই বিক্ষোভ থেকে রুশ পুলিশ আরো অন্তত ১,০০০ জনকে আটক করেছে।

২০১৭ সালে অ্যালেক্সি নাভালনির মুখে ‘গ্রিন ডাই’ ছুঁড়েছিল পুলিশ। সে সময় তার চিকিৎসা করেছিলেন আনাস্তাসি ভাসিলিয়েভা। তিনি ফেসবুক পোস্টে লিখেছেন, “জেলখানায় অন্য বন্দিদের যে খাবার দেয়া হয়েছে নাভালনিকেও সেই একই খাবার দেয়া হয়েছে। এছাড়া তিনি ব্যক্তিগত রূপ চর্চার কোনো পণ্য ব্যবহার করেন না। এমন অবস্থায় তার ত্বকে ক্ষতিকর বিষাক্ততা ও ফুলে ওঠার বিষয়টিকে আমরা এড়িয়ে যেতে পারি না। এটা হয়েছে অজ্ঞাত কোনো রাসায়নিকের কারণে। কোনো তৃতীয় ব্যক্তির মাধ্যমে তার ওপর এটা প্রয়োগ করা হয়েছে।”

ভাসিলিয়েভা দাবি করেন, নাভালনির সঙ্গে সাক্ষাত করতে তাকে ও অন্য চিকিৎসকদের বাধা দেয়া হয়েছে।#

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য