মাসুদ রানা পলক,ঠাকুরগাঁওঃঠাকুরগাঁও জেলার সদর উপজেলায় ঝুলন্ত অবস্থায় এক যুবকের লাশ উদ্ধারের ঘটনায় তার বাবা ও দ্বিতীয় মায়ের ছেলেকে আটক করেছে থানা পুলিশ।

শুক্রবার রাতে উপজেলার আউলিয়াপুর ইউনিয়নের কচুবাড়ি পশ্চিম মুন্সিপাড়া এলাকা থেকে ওই যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়।

কচুবাড়ি পশ্চিম মুন্সিপাড়া এলাকার দবিরুল ইসলামের ছেলে নিহত রফিকুল ইসলাম (৩৭) । এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে রাতেই বাবা দবিরুল ইসলাম (৫৫) ও সৎ ভাই মোঃ সাইফুল ইসলামকে আটক করে পুলিশ।

এলাকাবাসীর বরাতদিয়ে পুলিশ জানায়, ৩০ বছর আগে ১ম স্ত্রী জাহেদা বেগমের সাথে বিচ্ছেদ ঘটে দবিরুল ইসলামের। ১ম স্ত্রীর ছেলে-মেয়ে তিনজন। এর মধ্যে রফিকুল ইসলাম ছিল মেজো ছেলে। এরপর দবিরুল দ্বিতীয় বিয়ে করেন।

বিয়ের পর থেকে রফিকুল তার বাবা দবিরুল ইসলামের বাড়িতেই ছিল দ্বিতীয় মা ও ভাই-বোনদের সঙ্গে। প্রায় সময় নানা কারণে রফিকুল ইসলামের সথে তার দ্বিতীয় মা সালেহা খাতুন ও দ্বিতীয় মায়ের পক্ষের ভাই-বোনদের সঙ্গে ঝগড়া হতো। শুক্রবার রাতে রফিকুল ইসলাম তার ঘর থেকে ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পুলিশের সুরতহাল রিপোর্টে রফিকুল ইসলামের কোমড়ের নিচ অংশে আঘাতের দাগ পাওয়া গেছে এবং সে সব দাগ থেকে প্রচুর পরিমাণে রক্ত রক্ষণ দেখা গেছে।

ঠাকুরগাঁও সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আশিকুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান প্রাথমিকভাবে এটি হত্যাকাণ্ড মনে হচ্ছে। তদন্ত সাপেক্ষ্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য