সত্যি বলুন তো, সারাদিনে রূপচর্চার জন্য যেটুকু সময় বরাদ্দ রাখেন, তার সিংহভাগই মুখের জন্য তোলা থাকে কিনা? শরীরের বাকি অংশের ব্যাপারে আর কতটুকুই বা নজর দেন আপনি? হাত-পায়ে ময়শ্চারাইজ়ার বা বডি লোশন মেখেই শেষ হয়ে যায় দায়িত্ব! একইরকম অবহেলিত থাকে আপনার বাহুমূলও! স্নানের পর ডিও স্প্রে বা ট্যালকম পাউডার, গরমের দিনে ঘাম এড়িয়ে তরতাজা থাকতে এটুকুই বরাদ্দ থাকে আন্ডার-আর্মের জন্য। কিন্তু অনেকেরই ডিও স্প্রে থেকে অ্যালার্জি বা র‍্যাশ বেরোয়, ডিও স্প্রে-র রাসায়নিক থেকে ত্বকে অন্য নানারকম সমস্যাও হতে পারে। তাই যদি নিজে নিজেই বানিয়ে নেওয়া যায় এমন কোনও ডিও স্প্রে, যা সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক, তা হলেই সবচেয়ে ভালো হয় না? ডিও স্প্রে নয়, এটি হবে আপনার একদম এক্সক্লুসিভ

ডিটক্স স্প্রে!

জেনে নিন আপনার বাহুমূলের জন্য কীভাবে বানিয়ে নেবেন সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক ডিটক্স স্প্রে! এই প্রাকৃতিক স্প্রেটি একদিকে যেমন প্রাকৃতিক ডিওডোরান্ট হিসেবে কাজ করবে, তেমনি সুরক্ষিত ও কোমল রাখবে আপনার বাহুমূলের ত্বক, ঘামও কমাবে একইসঙ্গে!

আপনার দরকার
1. এক টেবিলচামচ অর্গানিক অ্যাপল সাইডার ভিনিগার
2. 4 ফোঁটা খাঁটি ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল অয়েল
3. আধ কাপ গোলাপজল
4. স্প্রে বটল

পদ্ধতি
1. একটা কাপে এক টেবিলচামচ অর্গানিক অ্যাপল সাইডার ভিনিগার নিন, তার সঙ্গে 4 ফোঁটা খাঁটি ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল অয়েল মেশান।
2. এবার ওই মিশ্রণে আধ কাপ গোলাপজল ঢেলে দিন।
3. ভালো করে মিশিয়ে স্প্রে বটলে ঢেলে ঠান্ডা কোনও জায়গায় রেখে দিন।
4. আপনার সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক ডিটক্স স্প্রে রেডি! ব্যবহার করার আগে বোতলটা ভালো করে ঝাঁকিয়ে নিন, তারপর শুকনো বাহুমূলে অল্প করে স্প্রে করে শুকিয়ে নিন। প্রতিদিন ব্যবহার করার পক্ষে এই ডিটক্স স্প্রে সম্পূর্ণ নিরাপদ ও ত্বকের পক্ষে দারুণ উপকারীও বটে!

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য