গরম, বর্ষার যুগপৎ আক্রমণে পোকামাকড়ের বংশবৃদ্ধি হয় দুদ্দাড়িয়ে। পিঁপড়ে, আরশোলা, মাকড়সা তো চোখে দেখা যায়, তা ছাড়াও জামাকাপড় বা বিছানার ভাঁজে ভাঁজে এমন সব মারাত্মক রক্তপিপাসু ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র কীট লুকিয়ে থাকতে পারে যাদের কামড় খাওয়ার আগে অস্তিত্বই টের পাবেন না! এই পরিস্থিতি থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য আপনি বাজারচলতি রায়াসনিক সমৃদ্ধ ক্ষতিকারক বাগ রেপেলেন্টের দ্বারস্থ হতে পারেন। অথবা আপনার প্রিয় এসেনশিয়াল অয়েলের সাহায্যে বাড়িতেই তৈরি করে নিতে পারেন সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক দ্রবণ। জেনে নিন কোন কোন এসেনশিয়াল অয়েল এই কাজে ব্যবহার করা সম্ভব। তবে সব সময়েই এসেনশিয়াল অয়েল ডাইলিউট করে নেবেন, সরাসরি ব্যবহার করার কোনও প্রয়োজন নেই। উলটে তার তেজে ত্বকের ক্ষতি হতে পারে।

ইউক্যালিপটাস তেল: ইউক্যালিপটাস গাছের গায়ে মোটেই পোকামাকড় ধরে না, কারণ তার তীব্র ঝাঁঝালো গন্ধ। আন্দাজ এক কাপ প্রমাণ ভদকার সঙ্গে 21/2 চাচামচ লেমন এসেনশিয়াল অয়েল আর সমপরিমাণ ইউক্যালিপটাস অয়েল মিশিয়ে একটা স্প্রে বোতলে ভরে রাখুন। গোটা বাড়িতে ছড়িয়ে রাখা যায় এই মিশ্রণ। প্রতি রাতে সমস্ত নর্দমা আর বেসিনের পাইপলাইনের গোড়ায় দিয়ে রাখলে আরশোলা-ইদুঁরও আপনাকে বিব্রত করতে পারবে না। কাপড়চোপড়ের আলমারিতেও ছিটিয়ে রাখা যায়। ইউক্যালিপটাসের মিশ্রণে ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে নিলে দারুণ সুগন্ধি মিশ্রণ তৈরি হবে।

সিট্রোনেলা তেল: মশা-মাছি, পোকামাকড় তাড়াতে সিট্রোনেলার জবাব নেই! বিশেষ করে যাঁরা প্রায়ই জঙ্গলে বেড়াতে যান, তাঁদের তো বাগ রেপেলেন্টের প্রয়োজন হয় বেশি। তাঁরা স্বচ্ছন্দে সিট্রোনেলার তেল ব্যবহার করতে পারেন। এক কাপ ভদকা আর 21/2 চাচামচ সিট্রোনেলা তেল মিশিয়ে স্প্রে বোতলে ভরে হাতের কাছে রাখুন। বাচ্চাদের গায়ে ব্যবহার করতে হলে জল আর এই তেলের মিশ্রণ সবচেয়ে ভালো।

ল্যাভেন্ডার তেল: মশা এবং যে কোনও রক্তচোষা পোকামাকড় তাড়াতে ল্যাভেন্ডার তেলের কোনও বিকল্প নেই। মাছিও পালাবে এই সুগন্ধে। 2 চামচ ল্যাভেন্ডার তেল মিশিয়ে নিন এক কাপ জলে। ভালো করে ঝাঁকিয়ে স্প্রে বোতলে ভরে ইচ্ছেমতো ব্যবহার করতে পারেন।

টি ট্রি অয়েল: কোনও পোকামাকড়ই টি ট্রি তেলের গন্ধ মোটে সহ্য করতে পারে না। গোটা বাড়িতে ছড়িয়ে রাখতে পারেন টি ট্রি তেল আর জলের মিশ্রণ। যাঁরা খুব ট্র্যাভেল করেন, তাঁদের অনেক সময় ছারপোকার সমস্যা বড়ো বিব্রত করে, অচেনা বিছানায় শোওয়ার আগে এই মিশ্রণ ছড়িয়ে নিন অবশ্যই, নিশ্চিন্তে ঘুমোতে পারবেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য