কয়েকদিনের ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার গাড়াগ্রাম ইউনিয়নের ১২ টি জায়গায় বড় ধরনের ভাঙন দেখা দিয়েছে। ফলে ওই সড়ক দিয়ে ভারী যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

উপজেলা প্রকৌশলীর কাযার্লয় সূত্রে জানা গেছে, গত ২০০৮-৯ অর্থবছরে কিশোরগঞ্জ উপজেলার গাড়াগ্রাম ইউনিয়নের কিশোরগঞ্জ জিসি থেকে টেপারহাট জিসি হয়ে ডালিয়া সড়ক পর্যন্ত ৮ কিলোমিটার নতুন পাকা সড়ক নির্মাণ করে সরকার। গত কয়েকদিনের ভারী বর্ষণের ফলে ওই ৮ কিলোমিটার সড়কের ১০ থেকে ১২টি জায়গায় বড় ধরনের ভাঙন দেখা দিয়েছে। ফলে ভারী যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

খবর পেয়ে উপজেলা নিবার্হী অফিসার আবুল কালাম আজাদ ও উপজেলা সহকারী প্রকৌশলী সাজেদুর রহমান সড়কটি পরিদর্শণ করেছেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবুল কালাম আজাদ ভেঙে যাওয়া সড়ক পরিদর্শনের কথা স্বীকার করে বলেন, ‘কয়েকদিনের ভারী বর্ষণের কারণে সড়কটির বেশ কয়েকটি স্থানে বড় ধরনের ভাঙনের কারণে ভারী যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। যান চলাচল স্বাভাবিক করার জন্য ভেঙে যাওয়া অংশ দ্রুত মেরামত করার জন্য উপজেলা প্রকৌশলীকে নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: নাসার সংবর্ধনায় আবারও টিম অলিককে আমন্ত্রণ

উপজেলা প্রকৌশলী এস এম কেরামত আলী নান্নু বলেন, সড়কটি দিয়ে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক করার জন্য প্রয়োজনীয় সংস্কার অব্যাহত রয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য