গ্রিসের পুলিশ বলেছে, তারা ১৯ জন কাগজপত্র বিহীন বাংলাদেশী ও পাকিস্তানী অভিবাসীকে জিম্মিদশা থেকে উদ্ধার করতে সক্ষম। এরা সবাই উত্তর গ্রিসের ভলভিতে একটি গুদামে পাচারকারী চক্রের হাতে মুক্তিপণ দাবিতে বন্দী ছিলো। সোমবার তাদেরকে উদ্ধার করা হয় বলে জানিয়েছে গ্রিসের সংবাদপত্র কাথিমেরিনি।

২৬ বছরের এক পাকিস্তানি গ্যাং সদস্যকে পুলিশ শুরুতে গ্রেপ্তার করে। পরে তার কাছ থেকে আদায় করা তথ্যের ভিত্তিদের জিম্মি বাংলাদেশি ও পাকিস্তানিদের উদ্ধার করা হয়। সদস্যদের একটি সংখ্যক ব্যক্তি এখনও গ্রেপ্তার হয়নি।

পুলিশের তদন্তে জানা গেছে যে ১৯ জন অভিবাসীরা তুর্কি সীমান্তের মাধ্যমে থেসালোনিকি শহরের উত্তরাঞ্চলীয় বন্দরে পৌছে দেয়ার জন্য পাচারকারীদের অর্থ প্রদান করেছিল।

কিন্তু পরে তাদের ভলভি শহরে ফেরত পাঠানো হয়েছিল এবং পাচারকারীরা দেশে থাকা অভিবাসীদের পরিবারের সদস্যদের কাছ থেকে অতিরিক্ত অর্থ দাবি করছিল।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য