মাসুদ রানা পলক,ঠাকুরগাঁও: দ্বিতীয় ধাপের বরাদ্দেও কৃষক‌ের তুলনায় বা‌েরা‌ে ধান সংগ্রহ‌ের বরাদ্দ কম থাকায় ঠাকুরগাঁওয়‌ের বালিয়াডাঙ্গীত‌ে সরকার‌ের নিকট সরাসরি ধান বিক্রির জন্য লটারীর মাধ্যম‌ে কৃষক‌ের তালিকা নির্ধারণ করা হয়‌েছ‌ে।

সা‌েমবার দুপুর দ‌েড়টার সময় উপজ‌েলা পরিষদ হ‌োলরুম‌ে উপজ‌েলার ২৮ হাজার ৪শত ঊনিশ জন কৃষক‌ের মধ্য‌ে থ‌েক‌ে লটারীর মাধ্যম‌ে ৫’শ বার‌ো জন কৃষক‌ের নাম‌ের তালিকা প্রণয়ন করা হয়।

লটারীর মাধ্যম‌ে তালিকাভুক্ত ওই ৫’শ ১২ জন কৃষক সরাসরি বালিয়াডাঙ্গী উপজ‌েলার দুটি খাদ্য গুদাম‌ে মাথাপিছু ১মেট্র‌িক টন হারে সরসারি ধান বিক্রি করত‌ে পারব‌েন।

তব‌ে বোরা ধান সংগ্রহ অভিযান‌ে এবার‌েই প্রথম লটারীর মাধ্যম‌ে কৃষক‌ের তালিকা প্রনয়ণ করা হয়‌েছ‌ে ঠাকুরগাঁও জ‌েলার ৫টি উপজ‌েলায়। এর আগ‌ে সরকারি ভাব‌ে ধান ক্রয় করা হল‌েও তাত‌ে লাভবান হত‌ে পার‌েনি কৃষক।

সবই ছিল ব্যবসায়ী ও স্থানীয় প্রভাবশালীদ‌ের দখল‌ে। এ পদ্ধতিতে ধান সংগ্রহ করা হলে সরাসরি কৃষক উপকৃত হব‌ে এমন ধারণা কর‌েই ব্যতিক্রম উদ্যাগ নিয়‌েছ‌ে জ‌েলা ও উপজ‌েলা প্রশাসন।

২য় ধাপ‌ে কৃষক‌ের ভাগ্য নির্ধারণী লটারী অনুষ্ঠান‌ে উপজ‌েলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল্লাহ আল মামুন, জ‌েলা আ.লীগ‌ের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রভাষক মাজহারুল ইসলাম, উপজ‌েলা আ.লীগ‌ের সভাপতি আলহাজ্ব মা‌েহাম্মদ আলী, উপজ‌েলা খাদ্য কর্মকর্তা নিখিল চদ্র বর্মন, উপজ‌েলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা সুমন আহম‌েদ, ওসি এলএসডি শ‌েখ আব্দুস সালাম, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আব্দুস সামাদ, ৮ ইউনিয়ন‌ের চ‌েয়ারম্যানসহ ও স্থানীয় প্রিট ও ইলক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিল‌েন।

উপজ‌েলা খাদ্য কর্মকর্তা নিখিল চদ্র বর্মন বল‌েন, ১ম ধাপ‌ে ৬৪ জন কৃষক‌ের নিকট হত‌ে ৪’শ ক‌েজি কর‌ে ধান সংগ্রহ অভিযান শ‌েষ হয়‌েছ‌ে। ২য় ধাপ‌ের কৃষকরা মাথাপিছু ১ ম‌ে.টন ধান দিত‌ে পারব‌ে ৫১২ জন কৃষক। উপজ‌েলার ৮টি ইউনিয়ন‌ে ৩টি কর‌ে ২৭টি ব্লক ভাগ করা হয়‌েছ‌ে। স‌ে অনুযায়ী লটারীর মাধ্যম‌ে কৃষক‌ের তালিকা প্রনয়ণ করা হয়‌েছ‌ে। এ তালিকার কৃষকদ‌ের নিকট হত‌ে আগামীকাল মঙ্গলবার বিকাল থ‌েক‌ে ধান সংগ্রহ অভিযান শুরু করা হব‌ে। এ অভিযান চলব‌ে ২৫ জুলাই পর্যন্ত তারপর‌ে ধান ক্রয় উন্মুক্ত করে দ‌েওয়া হব‌ে।

উপজেলা কৃষি অধিদফতর থ‌েক‌ে জানা গ‌েছে, চলতি বছর বালিয়াডাঙ্গী উপজ‌েলায় ৭ হাজার ৭’শ হক্টর জমিত‌ে বা‌েরা‌ে ধান উৎপাদন‌ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়‌েছিল। উৎপাদন হয়‌েছ‌ে ৮ হাজার হ‌েক্টর জমিত‌ে। তব‌ে অন‌েক কৃষক‌ের ঘর‌েই এখন ধান ন‌েই।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য