সংবাদ সম্মেলনঃ দিনাজপুর হাবিপ্রবিতে শিক্ষক কর্মকর্তা কর্মচারী নিয়োগে ব্যাপক অনিয়েমের মাধ্যমে একজন মুক্তিযোদ্ধার মেধাবী সন্তানকে অবজ্ঞা করে চাকুরী দেয়া হলো রাজাকার পরিবারের সন্তানকে অভিযোগ করলেন বীরমুক্তিযোদ্ধার বিধবা পতœী মনিজা বেগম।

১০ জুলাই বুধবার সকালে দিনাজপুর প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখিত অভিযোগ করে মুক্তিযোদ্ধার বিধবা পতœী মনিজা বেগম লিখিত বক্তব্যে বলেন, দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ও শিক্ষক পদে নিয়োগে ব্যাপক অনিয়ম করা হয়েছে। তিনি বলেন,এখানে নিয়োগের ক্ষেত্রে মুক্তিযোদ্ধা কোটাসহ কোন কোটাই সংরক্ষন করা হয়নি।

তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় দূর্নীতি পরায়ন কর্তৃপক্ষ সর্ম্পুন্ন ভাবে আবেদনকারীদের সাথে প্রতারণা করেছেন,কেননা একাধিক পদে আবেদনকারীর একাধিক পরীক্ষা না নিয়ে মাত্র ২০ মার্কের একটি লিখিত পরিক্ষার মাধ্যমে সব পদের মুল্যায়ন করেছেন। যা রীতিমত আবেদনকারীদের সাথে প্রতারনার সামিল। নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা সেকশন অফিসার পদে ৪ জন স্থলে ৫ জন, কাউন্ট অফিসার পদে ১ জনের স্থলে ২ জন, স্টেট অফিসার পদে ১ জনের স্থলে ৪ জন নেয়া হয়েছে । অথচ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির কথাও বলা হয়নি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ পদের সংখ্যা বাড়াতে, কমাতে বা নিয়োগ বাতিল করার ক্ষমতা সংরক্ষণ করার করেন। আমি এই অনিয়মের নিয়োগ বাতিল দাবী করছি।

সংবাদ সম্মেলনে দু:খ করে মনিজা বেগম জানান,বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম মমিন সরকারের পুত্র আল মামুন ২০১০ সালে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিনে ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিষয়ের অর্নাস পরীক্ষায় প্রথম শ্রেনীতে প্রথম স্থান অধিকার করেছে এবং মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হয়েও আজ সে চাকুরী পেলো না।

তিনি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট এ নিয়োগ বাতিলের দাবী করে বলেন,বর্তমান ভিসি আঞ্চলিকতার টানে কুড়িগ্রাম সদর উপজেলা গয়ারী গ্রামের রাজাকার মো: সুজাউদ্দ্যোলার পুত্র কেবিএম মহিউদ্দীন নুরকে প্লানিং/ডেভলপমেন্ট অফিসার পদে নিয়োগ দিয়েছেন। এই নুরের বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয়ের গাড়ি ভাংচুরের জন্যে শোকজ হয়েছিলো এবং শিক্ষকরা একটি মামলাও করেছিলো অথচ তারই চাকুরী হলো, কিন্তু মেধাবী শিক্ষার্থী ও বঙ্গবন্ধুর আর্দশের সৈনিক বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হয়েও মামুনের চাকুরী হলো না।

স্বাধীনতার বীর সেনানী মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী হিসেবে মনিজা বেগম,হাবিপ্রবি‘র অনিয়ম ও দুর্নীতির নিয়োগ বাতিল করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট তার মেধাবী সন্তান আল মামুনের চাকুরীর দাবী করেন। সংবাদ সাম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন,সৈয়দ রাসেল চৌ:,মো:সোহেল রানা ও মো: মোশাররফ হোসেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য