দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুর সমন্বিত জেলা দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদকের ঝটিকা অভিযানে ৩ লক্ষ ২৮ হাজার টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগে সমাজ সেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক এবং অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটরকে আটক করে তাদের বিরুদ্ধে দুদক আইনে মামলা দায়ের করেছে।

দিনাজপুর সমন্বিত জেলা দুর্নীতি দমন কমিশনের উপ-পরিচালক আবু হেনা আশিকুর রহমান জানান, আজ বুধবার দুপুর দেড়টায় দুদকের সহকারী পরিচালক আহসানুল কবির পলাশের নেতৃত্বে শহরের মিশন রোডস্থ জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরে অভিযান চালিয়ে ওই ২ জনকে আটক করে।

আটক ২ জন জেলা সমাজ সেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক স্টিফেন মুর্মু (৫৯) ও ওই কার্যালয়ের অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান (৫৪)। আটক ২ জনকে আসামী করে দুদকের উপ-সহকারী পরিচালক মোঃ জিন্নাতুল ইসলাম বাদী হয়ে দুদক অধিদপ্তরে ১৯৪৭ সালের দুদক আইনের ৫ এর ২ ধারা এবং দন্ডবিধি আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। যার দুদকের মামলা নং ২, তারিখ ১০/৭/১৯ইং।

মামলার অভিযোগে প্রকাশ, আসামী স্টিফেন মুর্মু ও তার সহযোগীরা সমন্বিতভাবে যোগসাজসে সমাজ সেবা অধিদপ্তরের অবসরে যাওয়া মাঠ কর্মকর্তা আবুল কাশেমের অবসরকালীন ল্যামগ্রেন্টের প্রায় ৩ লক্ষ ২৮ হাজার টাকা ভুয়া স্বাক্ষরের মাধ্যমে উত্তোলন পূর্বক আত্মসাৎ করা হয়েছে। এই অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে তথ্য প্রমাণসহ ওই ২ জনকে আটক করা হয়।

সূত্রটি জানায়, আজ বুধবার বিকেল সাড়ে ৩টায় আটক ২ জনকে দিনাজপুর স্পেশাল জজ মোঃ মাহমুদুল করিমের আদালতে সোপর্দ করা হলে বিচারক তাদের জেল হাজতে প্রেরণের আদেশ দেন। বিকেল সাড়ে ৪টায় আদালত থেকে কড়া পুলিশ প্রহরায় দিনাজপুর জেল কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য যে, স্টিফেন মুর্মুর বিরুদ্ধে অপর ১ জনের অবসরকালীন ভাতার টাকা আত্মসাতের অভিযোগে অপর ১টি দুদকের মামলা আদালতে বিচারাধীন রয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য